সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ , ৮ মুহররম ১৪৪৬

বিদেশ

বিধানসভার ১৩ আসনে চলছে উপনির্বাচন

নিউজজি প্রতিবেদক ১০ জুলাই , ২০২৪, ১৭:০২:১৮

71
  • ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা: ভারতের সাত রাজ্যের ১৩টি বিধানসভা আসনে চলছে উপ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। পশ্চিমবঙ্গের চারটি, হিমাচল প্রদেশের তিনটি, উত্তরাখণ্ডের দুটি এবং পাঞ্জাব, বিহার, তামিলনাড়ু ও মধ্যপ্রদেশের একটি করে আসনে চলছে ভোট গ্রহণ। সকাল ৭টা থেকে শুরু হয়েছে ভোটগ্রহণ, চলবে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত।

এদিকে নির্বাচন শুরু হতেই পশ্চিমবঙ্গে বিক্ষিপ্ত সহিংসতার অভিযোগ উঠেছে। পশ্চিমবঙ্গে উপনির্বাচন হচ্ছে রাজ্যটির উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী বাগদা বিধানসভা, নদিয়া জেলার রানাঘাট-দক্ষিণ, উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জ ও কলকাতার মানিকতলা বিধানসভা আসনে। চার বিধানসভা আসনে মোট ৩৪ জন প্রার্থী রয়েছেন লড়াইয়ের ময়দানে। ৪ কেন্দ্রে মোট ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ১০৯৭টি। প্রত্যেক বুথেই মোতায়ন করা হয়েছে কেন্দ্রীয় বাহিনী।

কলকাতার মানিকতলায় তৃণমূল বিধায়ক সাধন পান্ডের মৃত্যু হওয়ার কারণে উপনির্বাচন হচ্ছে। মানিকতলায় তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী করা হয়েছে সাধন পান্ডের স্ত্রী সুপ্তি পান্ডেকে।রায়গঞ্জে বিজেপির টিকিটে ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনে জয়ী হওয়ার পরে তৃণমূলে যোগ দেন কৃষ্ণ কল্যাণী। আর এ বছর লোকসভা নির্বাচনে বিধায়ক পদ থেকে পদত্যাগ করে তৃণমূলের হয়ে রায়গঞ্জ আসনে দাঁড়িয়ে পরাজিত হয়েছেন তিনি।

বাগদা আর রানাঘাট-দক্ষিণ বিধানসভাতেও বিজেপির টিকিটে ২০২১ সালে নির্বাচনে জয়ী হওয়ার পর তৃণমূলে যোগ দিয়ে এবারের লোকসভা নির্বাচনে লড়াই করেছেন বিশ্বজিৎ দাস ও মুকুটমণি অধিকারী। পরাজিত হন দুজনই। এবার উপনির্বাচনে রায়গঞ্জ আসনে কৃষ্ণ কল্যাণী এবং রানাঘাট-দক্ষিণ আসনে মুকুটমণি অধিকারী ঘাসফুল শিবিরের টিকিট পেয়েছেন।

তবে উপনির্বাচনে রাজ্যগুলোর মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হিমাচল প্রদেশের হামিরপুর, নালাগড় ও দেহরা আসনের ভোট। ৬৮ আসনের হিমাচল বিধানসভায় কংগ্রেসের বিধায়ক সংখ্যা ৩৮। বিজেপির ২৭। সাম্প্রতিক সময়ে হিমাচলে কংগ্রেস সরকারকে বেকায়দায় ফেলে দেওয়ার জন্য চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছে বিজেপি। তাই উপনির্বাচন দুই দলের কাছেই গুরুত্বপূর্ণ।

এই তিন আসনের নির্দলীয় বিধায়করা ইস্তফা দিয়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। এজন্যই এই আসনগুলোতে উপনির্বাচন হচ্ছে। বিজেপি ওই তিন সাবেক নির্দলীয় বিধায়ককেই প্রার্থী করেছে। দেহরা আসনে হোশিয়ার সিং, হামিরপুরে আশিস শর্মা ও নালাগড়ে কে এল ঠাকুর লড়াই করছেন। অন্যদিকে, দেহরায় কংগ্রেসের টিকিটে লড়ছেন মুখ্যমন্ত্রী সুখবিন্দর সিং সুখুর স্ত্রী কমলেশ ঠাকুর। হামিরপুরে আশিসের বিরুদ্ধে কংগ্রেস প্রার্থী পুষ্পেন্দর শর্মা। নালাগড়ে গতবারের প্রার্থী হরদীপ সিং বাওয়াই হাত শিবিরের বাজি। এই আসনে বিক্ষুব্ধ বিজেপি নেতা হরপ্রীত সাইনি নির্দলীয় হিসেবে দাঁড়িয়ে লড়াই জমিয়ে দিয়েছেন।

উত্তরাখণ্ডের মঙ্গলৌর আসনে কংগ্রেস, বিজেপি ও বিএসপির ত্রিমুখী লড়াই। এখানে বিএসপি বিধায়ক সারওয়াত করিম আনসারির মৃত্যুর কারণে উপনির্বাচন হচ্ছে। অন্যদিকে বদ্রীনাথ আসনে মুখোমুখি কংগ্রেস ও বিজেপি।

পাঞ্জাবের পশ্চিম জলন্ধর আসনের আপের প্রাক্তন বিধায়ক শীতল অঙ্গুরাল বিজেপিতে যোগ দেওয়ায় সেখানে উপনির্বাচন হচ্ছে। তাঁকেই এবার প্রার্থী করেছে বিজেপি। সেখানে লড়াইয়ে রয়েছে আপ ও কংগ্রেসও।

বিহারের রূপালৌ আসনে বিমা ভারতী জেডিইউ বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দিয়ে আরজেডির টিকিটে লোকসভা নির্বাচনে লড়েছিলেন। লোকসভায় জিততে পারেননি বিমা। তাঁকেই উপনির্বাচনে টিকিট দিয়েছে আরজেডি। উল্টোদিকে প্রার্থী জেডিইউয়ের কলধর মণ্ডল।

তামিলনাড়ুর বিক্রাবন্দি আসনে ডিএমকের প্রাক্তন বিধায়ক এন পুঘাজেন্তির মৃত্যুতে উপনির্বাচন হচ্ছে। এই আসনে ডিএমকের সঙ্গে লড়াই বিজেপির শরিক পিএমকে’র। এআইডিএমকে উপনির্বাচন বয়কটের ডাক দিয়েছে।

মধ্যপ্রদেশের অমরওয়াড়া আসনে কংগ্রেস বিধায়ক কমলেশ শাহ ইস্তফা দিয়ে বিজেপিতে যোগ দেন। এই আসনটি ছিন্দওয়াড়া লোকসভা আসনের অন্তর্গত। ছিন্দওয়াড়ায় হারের ধাক্কা কাটিয়ে তাই উপনির্বাচনে ঘুরে দাঁড়াতে চাইছে কংগ্রেস।

নিউজজি/এস দত্ত

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন