সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১ , ৬ শাওয়াল ১৪৪৫

বিদেশ

শিগগিরই ন্যাটো ও ইইউর সদস্য পদ চান জেলেনস্কি

নিউজজি ডেস্ক ২ জুন , ২০২৩, ১৪:৫২:৩৪

93
  • ছবি: ইন্টারনেট

ঢাকা: রাশিয়া ও ইউক্রেনের পাল্টাপাল্টি হামলা অব্যাহত রয়েছে। ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে গতকাল (বৃহস্পতিবার) ভোরে রুশ বিমান হামলায় শিশুসহ অন্তত তিনজন নিহত এবং ১২ জন আহত হয়েছে। রাশিয়ার সীমান্তবর্তী বেলগেরোদ অঞ্চলের শেবেকিনো শহরে ইউক্রেন থেকে গোলাবর্ষণে অন্তত আটজন আহত হয়েছে। শিগগিরই ন্যাটো ও ইইউর সদস্য পদ চান জেলেনস্কিএসব ঘটনাপ্রবাহের মধ্যে ইউক্রেনীয় বাহিনী কর্তৃক সীমান্ত অতিক্রমের চেষ্টা প্রতিহত করার কথা জানিয়েছে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

অব্যাহত সংঘাতের মধ্যেই মলদোভায় ইউরোপীয় রাজনৈতিক সম্প্রদায়ের (ইপিসি) সম্মেলনে জরুরি ভিত্তিতে সামরিক জোট ন্যাটো ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) সদস্য পদের দাবির পুনরাবৃত্তি করেছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভোলোদিমির জেলেনস্কি। এদিকে নরওয়ের রাজধানী অসলোতে এক সভায় ইউক্রেনকে ন্যাটোর সদস্য পদ দেয়ার বিষয়ে জোটের সদস্যরা সম্মত হয়েছে বলে জানিয়েছেন ন্যাটোর মহাসচিব জেনস স্টলটেনবার্গ।

ইপিসি সম্মেলনে জেলেনস্কি: ইপিসি সম্মেলনে যোগ দিতে গতকাল প্রতিবেশী মলদোভায় পৌঁছে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি দ্রুত ন্যাটো ও ইইউতে যোগদানের বিষয়টি পুনরাবৃত্তি করেছেন। সেখানে ইউরোপীয় নেতারা রুশ আগ্রাসনের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

ইউক্রেন সীমান্ত থেকে মাত্র ২০ কিলোমিটার দূরে হয়েছে ইপিসি সম্মেলনের কেন্দ্র। ইউক্রেনে রুশ হামলা শুরুর পর ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও এর বাইরের ৪৭টি দেশ নিয়ে যাত্রা শুরু করে ইপিসি। এই জোটে রাশিয়া ও বেলারুশকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি। সম্মেলনে যোগ দিতে এসে ইউরোপীয় নেতাদের সতর্ক করে জেলেনস্কি বলেছেন, ‘কিয়েভকে ন্যাটো জোটে অন্তর্ভুক্ত করতে তারা কোনো সন্দেহ প্রকাশ করলে রাশিয়া আরো দেশে হামলা চালাতে উৎসাহ পাবে।

তিনি বলেন, ‘গুরুত্বপূর্ণ নিরাপত্তা পদক্ষেপ অথবা আমাদের ঐক্য সম্পর্কে সন্দেহ থাকতে পারে। তবে প্রতিটি সন্দেহ আরও বেশি নিরাপত্তাহীনতা বয়ে আনবে।’ তিনি বলেন, ‘ন্যাটোর সদস্য পদ পেতে সুস্পষ্ট আমন্ত্রণ ও নিরাপত্তা নিশ্চয়তা প্রয়োজন।’

পাল্টাপাল্টি হামলা অব্যাহত 

কিয়েভ জানিয়েছে, স্থানীয় সময় রাত ৩টার দিকে কিয়েভে ক্রুজ ও ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় রাশিয়া। এতে শিশুসহ তিনজন নিহত এবং ১২ জন আহত হয়েছে।

কিয়েভ নগর সামরিক কর্তৃপক্ষ বলেছে, দেসনিয়ানস্কি জেলায় এক শিশুসহ তিনজন নিহত এবং ১০ জন আহত হয়েছে। দিনিপ্রোভস্কি জেলায় দুজন আহত হয়েছে।

এদিকে রাশিয়ার বেলগেরোদ অঞ্চলের শেবেকিনো শহরে ইউক্রেনের গোলাবর্ষণে আটজন আহত হয়েছে। সেখানকার বাসিন্দাদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়ার কথা জানিয়েছেন আঞ্চলিক গভর্নর ভিয়াচেস্লাভ গ্লাদকোভ।

এছাড়া, ইউক্রেনীয় বাহিনীর সীমান্ত অতিক্রমের একাধিক চেষ্টা ঠেকিয়ে দিয়েছে রুশ প্রতিরক্ষা বাহিনী। মস্কো বলেছে, বেলগোরোদ অঞ্চলে ইউক্রেনীয় সেনাদের আক্রমণের চেষ্টা পণ্ড করা হয়েছে। রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলছে, যুদ্ধবিমান ও গোলাবর্ষণ করে ইউক্রেনীয় সেনাদের রুশ ভূখণ্ডে প্রবেশ ঠেকানো হয়েছে। এসব ঘটনার পর আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের নীরবতার নিন্দা জানিয়েছে ক্রেমলিন।

ইউক্রেনের নিরাপত্তা নিয়ে ন্যাটোর আলোচনা 

অসলোতে গতকাল এক বৈঠকে ইউক্রেনের নিরাপত্তাসংক্রান্ত নিশ্চয়তা নিয়ে আলোচনা করেছেন ন্যাটোর নেতারা। আগামী জুলাই মাসে লিথুয়ানিয়ায় ন্যাটোর সম্মেলন হওয়ার কথা রয়েছে। ইউক্রেনের ন্যাটোতে যোগদানের বিষয়টি সম্মেলনের অন্যতম আলোচ্য বিষয় হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে ওই সম্মেলনে ইউক্রেনের ন্যাটোতে অন্তর্ভুক্তির বিষয়ে পরিষ্কার বার্তা চেয়েছেন জেলেনস্কি।

বৈঠক শেষে ন্যাটোর মহাসচিব জেনস স্টলটেনবার্গ বলেন, ‘ন্যাটোর সম্প্রসারণে রাশিয়ার ভেটোতে কাজ হবে না বলে মত দিয়েছেন জোটের সদস্যরা। ন্যাটোতে ইউক্রেনের অন্তর্ভুক্তি ঠেকাতে পারবে না মস্কো। আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। ইউক্রেনের সদস্য হওয়ার বিষয়ে সম্মতি দিয়েছেন জোটের সদস্যরা।’

তিনি আরও বলেন, ‘যুদ্ধ কখন শেষ হবে, আমরা জানি না। তবে যুদ্ধ শেষ হলে ভবিষ্যতে ইউক্রেনের নিরাপত্তার জন্য গ্রহণযোগ্য ব্যবস্থা আছে কি না, তা নিশ্চিত করতে হবে।’ সূত্র : এএফপি, বিবিসি।

নিউজজি/এস দত্ত/নাসি 

 

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন