শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ , ১৩ শাবান ১৪৪৫

খেলা
  >
ক্রিকেট

ব্রেকের আগে মনসংযোগ হারিয়ে উইকেট দেয়ার আক্ষেপ

স্পোর্টস রিপোর্টার ২৮ নভেম্বর , ২০২৩, ১৪:৩৯:৫৭

264
  • ৮৮ রানের পার্টনারশিপের পথে জয়-মুমিনুল। ছবি-ক্রিকইনফো

বাংলাদেশ ১ম ইনিংস : ১৮৫/৪ (৫৫.০ ওভারে)

( ১ম দিনের টি ব্রেক পর্যন্ত)

টেস্টে ব্রেক সেশনের আগে-পরে কিছুটা সময় থাকতে হয় সতর্ক। এই মনস্তাত্বিক পরীক্ষা দিতে হবে। তা বোধ হয় ভুলেই গিয়েছিলেন বাংলাদেশের ৪ টপ অর্ডার। সিলেটে প্রথম দিনের প্রথম দুই সেশনে বাংলাদেশ ব্যাটারদের মনসংযোগে ব্যাঘাত ঘটার কথাই জেনেছে দর্শক। 

দিনের প্রথম ঘন্টা নির্বিঘ্নে কাটাতে যখন মাত্র ৪টি বল খেলতে হবে, তখন ভুল করেছেন জাকির। লাঞ্চের মিনিট দশেক আগে শট খেলতে প্রলুব্ধ হয়ে দিয়ে এসেছেন শান্ত উইকেট।

প্রথম সেশনে আক্ষেপের এই দুটি উইকেটের পর নির্বিঘ্নে দ্বিতীয় সেশন পাড়ি দিচ্ছে বাংলাদেশ দল, এমন আবহ যখন সিলেট স্টেডিয়ামে, তখন টি ব্রেকের আগে মাত্র ২ ওভারে দুই সেট ব্যাটার মুমিনুল (৩৭), জয় (৮৬) নিজেদের উইকেট বিলিয়ে দিয়েছেন! নামতা গুনে সেশনপ্রতি ২ উইকেট হারিয়ে টি ব্রেকের সময় বাংলাদেশের স্কোর ১৮৫/৪।

 আইসিসির চলমান টেস্ট চক্রে বাংলাদেশের অভিষেক দিনের প্রথম সেশনে বাংলাদেশের স্কোর ১০৪/২। দ্বিতীয় সেশনে সেখানে ৮১ রান যোগ করতে হারিয়েছে বাংলাদেশ ২ উইকেট।  

সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে ৫ বছর পর টেস্ট প্রত্যাবর্তন দিনে প্রথম দুই সেশনের ব্যাটিং প্রত্যাশাকে ছাড়িয়ে যেতে পারতো। তবে তামিম-সাকিব-লিটনহীন তারুণ্য নির্ভর দলটির তিনটি ব্রেকের পূর্বক্ষণে মনসংযোগে ঘটেছে ব্যাঘাত। হারিয়েছে ৪ উইকেট।

সোমবার উইকেটে টোকা মেরে নিউ জিল্যান্ড অধিনায়ক বলেছিলেন-‘শুরুতে কিছুক্ষণ বোলাররা সহায়তা পাবেন, পরে এখানে ধরবে স্পিন।’ তার সে ধারণার প্রতিফলনই প্রথম সেশনে দেখেছে সিলেটের দর্শক। নতুন বলে নিউ জিল্যান্ড পেসার সাউদি-জেমিসন ভয়ংকর হয়ে উঠতে পারেননি। ৩ ওভারেই থেমেছে নিউ জিল্যান্ড সেরা পেসার সাউদির প্রথম স্পেল। জেমিসন সেখানে প্রথম স্পেলে করেছেন ৫ ওভার। ৬ষ্ঠ ওভার থেকে আনতে হয়েছে স্পিন।

দিনের প্রথম ঘন্টা নির্বিঘ্নে পার করতে করতে ড্রিংকস ব্রেকের আগে ফিরে গেছেন সিলেটের লোকাল বয় জাকির। বাঁ হাতি স্পিনার আজাজ প্যাটেলের বলে ব্যাকফুটে খেলতে যেয়ে বোল্ড আউটে থেমেছেন তিনি মাত্র ১২ রানে (৪১ বলে ১ বাউন্ডারি)।

তামিম-সাকিব-লিটনহীন ব্যাটিং না জানি কতোটা দুর্ভাবনায় ফেলে? এ শঙ্কা করেছেন যারা, তাদেরকে আশ্বস্ত করতে চেয়েছেন টেস্টের নতুন অধিনায়ক শান্ত। হোমে ব্যাটিং নিয়ে দুর্ভাবনার কিছু নেই, টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়ে দিনের প্রথম সেশনে তা জানিয়ে দিয়েছেন শান্ত।  

দিনের প্রথম ঘন্টায় একটু বেশি ডিফেন্সিভ ব্যাটিং করেছে বাংলাদেশ। স্কোরকার্ডে প্রথম ঘন্টায় রান উঠেছে ১ উইকেট হারিয়ে ৩৯। অধিনায়ক শান্ত এসে দ্বিতীয় ঘন্টায় রান রেট বাড়ানোর চেষ্টা করেছেন। এই ঘন্টায় বাংলাদেশ যোগ করেছে ১ উইকেট হারিয়ে ৬৫।

বাঁ হাতি স্পিনার আজাজ প্যাটেলকে প্রতি আক্রমন করেছেন শান্ত। এই বাঁ হাতি স্পিনারের ৫ম এবং ৭ম ওভারে মেরেছেন একটি করে চার, ছক্কা। ৮ম ওভারে মেরেছেন ছক্কা। ওই তিনটি ছক্কার ১ টি লং অনের উপর দিয়ে, একটি আছড়ে পড়েছে সাইট স্ত্রিনে, অন্যটি ডিপ মিড উইকেটের উপর দিয়ে। তবে ওয়ানডে ম্যাচের আমেজে ব্যাটিংয়ে নিজের এবং দলের বিপদ ডেকে এনেছেন শান্ত। লাঞ্চ ব্রেকের ৮ মিনিট আগে করেছেন ভুলঅকেশনাল অফ স্পিনার গ্লেন ফিলিপের ফুলটসে মিড অনে ক্যাচ দিয়ে থেমেছেন ৩৭ রানে। ফিলিপের এটি অভিষেক টেস্ট উইকেট। শান্ত ৩৫ বলে মেরেছেন ২ বাউন্ডারির পাশে ৩ ছক্কা।জয়ের সঙ্গে দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ৭১ বলে ৫৩ রানে দিয়েছেন নেতৃত্ব শান্ত।

তৃতীয় উইকেট জুটিতে জয়-মুমিনুলের দারুণ বোঝাপড়ায় যোগ হয়েছে ৮৮ রান। লাঞ্চের পর জেমিসন এবং আজাজ প্যাটেলকে বাউন্ডারিতে ৪র্থ ফিফটি পূর্ন করেছেন জয়।  সাউদিকে এক ওভারে ২টি বাউন্ডারি মেরে হাফ সেঞ্চুরির স্বপ্ন দেখেছেন মুমিনুল। তবে অকেশনাল অফ স্পিনার গ্লেন ফিলিপকে ব্যাকফুটে কাট করতে যেয়ে উইকেটের পেছনে দিয়েছেন মুমিনুল ক্যাচ (৭৮ বলে ৪ বাউন্ডারিতে ৩৭)।

জয় এদিন স্বপ্ন দেখেছেন দ্বিতীয় টেস্ট সেঞ্চুরির। চান্সলেস ইনিংসে সেই কক্ষপথেই ছিলেন।তবে টি ব্রেকের আগের ওভারে লেগ স্পিনার ইস সোধির আউটসাইড অফ ডেলিভারি ফ্রন্টফুটে ডিফেন্স করতে যেয়ে বলের টার্নে পরাস্ত হয়েছেন। স্লিপে দিয়েছেন ক্যাচ (১৬৬ বলে ১১ বাউন্ডাারিতে ৮৬)।এই দুটি উইকেট পড়েছে মাত্র ৪ রানের ব্যবধানে!

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন