সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ , ৮ মুহররম ১৪৪৬

খেলা

পুরান ঝড়ে রেকর্ডময় রাতে ওমরজাইয়ের খরুচে ওভারের লজ্জা

শামীম চৌধুরী, সেন্ট ভিনসেন্ট থেকে জুন ১৮, ২০২৪, ১০:৩০:০৬

179
  • ৯৮ রানের ইনিংসের পথে পুরানের একটি শট। ছবি-ক্রিকইনফো

ওয়েস্ট ইন্ডিজ : ২১৮/৫ (২০.০ ওভারে)

আফগানিস্তান : ১১৪/১০ (১৬.২ ওভারে)

ফল : ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১০৪ রানে জয়ী।

প্লেয়ার অব দ্য ম্যাচ : নিকোলাস পুরান (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)।

চলমান বিশ্বকাপে রান নেই, রান হচ্ছে না বলে কী বিলাপই না হচ্ছে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বারবাডোজে অস্ট্রেলিয়া (২০১/৭) ছাড়া ২০০ স্কোর করতে পারেনি কেউ।

সুপার এইট নিশ্চিত করে গ্রুপ রাউন্ডের শেষ ম্যাচে রেকর্ড করেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। নিকোলাস পুরান ঝড়ে (৫৩ বলে ৬ চার, ৮ ছক্কায় ৯৮) চলমান আসরের সর্বোচ্চ (২১৮/৫) এবং টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ইতিহাসে নিজেদের সর্বোচ্চ স্কোর করেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

নিকোলাস ঝড়ের রাতে আজমতউল্লাহ ওমরজাই এক ওভারে রেকর্ড ৩৬ রান খরচ করেছেন। তাতেই 'সি' গ্রুপের শেষ ম্যাচে আফগানিস্তানকে ১০৪ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে সুপার এইটে খেলবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

সেন্ট লুসিয়ায় টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্তটা বুমেরাং হয়েছে আফগানিস্তানের। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ব্যাটিং পাওয়ার প্লে-এর ৬ ওভারে এতোদিন সর্বোচ্চ ৯১ রানের রেকর্ড ছিল আয়ারল্যান্ডের।

২০১৪ সালে অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সিলেটে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে এই রেকর্ড করেছিল আয়ারল্যান্ড। সেই রেকর্ড টপকে ব্যাটিং পাওয়ার প্লে-তে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ ৯২/১ স্কোর করেছে এদিন ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

ইনিংসের ৪র্থ ওভারে আজমতউল্লাহ ওমরজাইকে নিকোলাস পুরান মেরেছেন ৩ চার, ২ ছক্কা, একটি নো বল থেকে বাউন্ডারি, লেগ বাই থেকে বাউন্ডারি যোগ হয়েছে এই ওভারে। তাতেই টি-টোয়েন্টি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এক ওভারে সর্বাধিক ৩৬ রান খরচে ব্রড, আকিলা ধনঞ্জয়া, কামরান খান,করিম জানাতের পাশে যুক্ত হয়েছে আজমতউল্লাহ ওমরজাইয়ের নাম।

টি-টোয়েন্টি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে এতোদিন ১২৪টি ছক্কা ছিল ক্রিস গেইলের। সোমবার রাতে সেন্ট লুসিায়ায় ৮টি ছক্কা মেরে গেইলকে টপকে পুরানের ছক্কার সংখ্যা এখন ১২৮।

এমন একটি রাতে টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে প্রথম সেঞ্চুরিটা উদযাপন করতে পারতেন পুরান। শেষ ওভারে ১৫ রান টার্গেট ছিল তার। নাভিন উল হক-এর প্রথম দুই বলে ২ ছক্কা মেরে লক্ষ্যের খুব কাছে পৌছে গিয়েছিলেন পুরান। তবে ৪র্থ বলে ২ রান নিতে যেয়ে রান আউটে কাটা পড়লে সেঞ্চুরি হাতছাড়া হয়েছে তার। 

তবে ২ রানের জন্য সেঞ্চুরি হাতছাড়া করার আক্ষেপের ম্যাচে পুরানকে দারুণ কিছু উপহার দিয়েছেন টিমমেট ৩ বাঁ হাতি বোলা্র। দুই বাঁ হাতি স্পিনার আকিল হুসেইন (২/২১), গুদাকেশ মোতি (২/২৮) এবং বাঁ হাতি পেসার ওবেইদ ম্যাককয় (৩/১৪)-এর বোলিংয়ে ১১৪ রানে আফগানিস্তানকে অল আউট করে ১০৪ রানের বড় জয়ে আত্মবিশ্বাস নিয়ে সুপার এইটে খেলবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। 

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন