সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ , ৮ মুহররম ১৪৪৬

খেলা

তানজিমের ক্যারিয়ারসেরা বোলিংয়ের রাতে ২১টি ডট বলের রেকর্ড

শামীম চৌধুরী, সেন্ট ভিনসেন্ট থেকে জুন ১৭, ২০২৪, ১০:১৪:৫১

215
  • প্লেয়ার অব দ্য ম্যাচ তানজিম হাসান সাকিব। ছবি-শামীম চৌধুরী, সেন্ট ভিনসেন্ট থেকে

সাইফউদ্দিনকে বিবেচনা না করে কেনো তানজিম হাসান সাকিবকে নেয়া হলো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্কোয়াডে ? নির্বাচক, কোচ, অধিনায়ককে এ প্রশ্নের মুখে পড়তে হয়েছে।

সাইফউদ্দিনের চেয়ে বোলিংয়ে গতি বেশি, ডেথ ওভারে স্নায়ুচাপ রেখে বোলিংয়ে কার্যকরী তানজিম-যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লাইট ধরার আগে এটাই ছিল নির্বাচক, কোচ-অধিনায়কের যুক্তি। 

তিন পেসার নিয়ে একাদশ সাজালে সেখানে মোস্তাফিজ, তাসকিনের পাশে বিবেচ্য হওয়ার কথা বাঁ হাতি পেসার শরিফুলের। তবে শরিফুলের ভাগ্যটা খারাপ। নিউ ইয়র্কে ভারতের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে ফলো থ্রুতে বলের আঘাতে শরিফুল চোট না পেলে তানজিম হাসান সাকিবের খেলার সুযোগই ছিল না।

শরিফুলের এই ইনজুরি সুযোগ করে দিয়েছে তানজিম হাসান সাকিবকে। সেই সুযোগের সদ্বব্যহার করেছেন তানজিম হাসান সাকিব। প্রতি ম্যাচেই উন্নতি হয়েছে তার। ডালাসে প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৪-০-২৪-১, নিউ ইয়র্কে দ্বিতীয় ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৪-০-১৯-২, সেন্ট লুসিয়ায় নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ৪-০-৩১-২, সেই সেন্ট লুসিয়ায় গ্রুপ রাউন্ডের শেষ ম্যাচে নেপালের বিপক্ষে ক্যারিয়ারসেরা বোলিংয়ে (৪-২-৭-৪) ৪ উইকেট।

ক্যারিয়ারসেরা বোলিংয়ে ডট বলের রেকর্ড, সেন্ট ভিনসেন্টে ম্যাচ জিতিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজের অভিষেক আসরে প্রথম  প্লেয়ার অব দ্য ম্যাচের পুরষ্কার পেলেন তানজিম হাসান সাকিব।

 আগের তিনটি ম্যাচে ব্যাটিং পাওয়ার প্লে-এর পাশে শেষ পাওয়ার প্লে-তে তানজিম হাসান সাকিবকে বোলিংয়ের জন্য বরাদ্দ রাখলেও নেপালের বিপক্ষে টানা ৪ ওভারের স্পেলে বোলিং কোটা শেষ করেছেন তানজিম। সেন্ট লুসিয়ায় বাতাসের প্রবাহকে কাজে লাগিয়ে সুইং আদায় করতে পেরেছেন তানজিম, সে কারণেই নতুন বলেই তানজিমকে দিয়ে টানা ৪ ওভার বোলিং করিয়েছেন শান্ত।

তানজিম নিজের দ্বিতীয় ওভারের দ্বিতীয় বলে ভুর্তেলকে করেছেন বোল্ড (৮ বলে ৪), চতুর্থ বলে অনিল মিড অফে দিয়েছেন ক্যাচ (২ বলে ০)। নিজের তৃতীয় ওভারে শর্ট বলে পুডেল দিয়েছেন ব্যাকওয়ার্ড স্কোয়ার লেগে ক্যাচ (৬ বলে ১)। তানজিমের শেষ বলে একই ধরণের ডেলিভারিতে একই পজিশনে দিয়েছেন ক্যাচ সদ্বীপ (৮ বলে ১)।

ক্যারিয়ারসেরা বোলিং করেছেন তানজিম হাসান সাকিব টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে। ২৪টি ডেলিভারির মধ্যে ২১টি ডট। একটিও খাননি বাউন্ডারি। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ডট বলে রেকর্ড এটাই। প্রথম ৩ বলে ৫ রানের পর পরের ২২ বলে ২১টি ডট! ভাবা যায় ? টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ডট বলের রেকর্ডের খবরটা জেনেছেন প্লেয়ার অব দ্য ম্যাচের পুরস্কার জিতে মিক্সড জোনে এসে। এক সাংবাদিকের মুখে এমন রেকর্ডের কথা শুনে তানজিম হাসান সাকিব তো রীতিমতো অবাক-‘ না এখন জানলাম, কি প্রতিক্রিয়া দিব। আমি তো এই প্রথম শুনলাম। ওই সময়ে শুধু উইকেটের ভাবনা ছিল।’

নেপালকে ১০৭ রানের টার্গেট দিয়েও জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী ছিলেন তানজিম হাসান সাকিব। মিক্সড জোনে এসে তা বলেছেন এই ম্যাচ উইনার-‘ আমার লক্ষ্য ছিল বল লেন্থ লাইনে করা। এ্যগ্রেসিভনেসটা এমনিতেই চলে আসবে। আমরা কখনো আত্মবিশ্বাস হারাইনি। এন্ড অব দ্য ইনিংস মোস্তাফিজ আছে। উনি ৪ ওভারে ৭ রান দিয়ে তা শো করেছেন।’  

রোহিত পুডেল তানজিমকে বলেছেন, তুমি বল করো, আমি হিট করব। তানজিম জবাবে বলেছিলেন পারলে মারো। দু'জনের এই বাকযুদ্ধে আম্পায়ার দু'জনকেই সতর্ক করেছেন। ম্যাচ শেষে ওই প্রসঙ্গে তানজিম হাসান সাকিব বলেছেন-‘অ্যাটাক ইজ দ্য বেস্ট ডিফেন্স আমরা জানতাম। তাই ওকে বলেছিলাম ইট ইজ নট ইজি।’

সব সময় ইতিবাচক থাকেন, এ কারণেই আত্মবিশ্বাস হারান না বলে জানিয়েছেন তানজিম হাসান সাকিব-‘ হারার আগে হেরে যাব, এই চিন্তা কখনো করি না। ফোকাস থাকে কি শিখলাম, এটা। আমি কখনো নেগেটিভ কিছু ভাবি না। হয়তবা এ কারণেই আমার মধ্যে আত্মবিশ্বাস দেখতে পান।’  

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন