বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ , ৮ শাওয়াল ১৪৪৫

খেলা

এবারও আবাহনীর সঙ্গে কুলিয়ে উঠতে পারেনি মোহামেডান

স্পোর্টস রিপোর্টার এপ্রিল ২, ২০২৪, ১৬:১৭:৩২

377
  • প্লেয়ার অব দ্য ম্যাচ আবাহনীর জাকের আলী অনিক। ছবি-ইউটিউব ভিডিও থেকে নেয়া

মোহামেডান : ১৯০/৯ (৫০.০ ওভারে)

আবাহনী : ১৯৫/২ (৩৫.০ ওভারে)

ফল : আবাহনী ৮ উইকেটে জয়ী।

প্লেয়ার অব দ্য ম্যাচ : জাকের আলী অনিক (আবাহনী)। 

ঢাকার ক্লাব ক্রিকেটে এক সময়ের কঠিন প্রতিপক্ষ মোহামেডান অনেকদিন ধরেই আবাহনীর সঙ্গে কুলিয়ে উঠতে পারছে না। চলমান প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগেও তার ব্যতিক্রম হয়নি।

মঙ্গলবার ফতুল্লায় ৯০ বল হারে রেখে মোহামেডানকে ৮ উইকেটে হারিয়ে টানা ৮ম জয় উদযাপন করেছে আবাহনী।   

 এবার প্রথম ৭ রাউন্ড শেষে আবাহনীর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হওয়ায় মঙ্গলবার আবাহনী-মোহামেডান লড়াইটা জমে উঠবে বলে সমর্থকদের প্রত্যাশা। কিন্তু ফতুল্লায় মোহামেডানের ব্যাটিংয়ে তার প্রতিফলন পড়েনি। টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ১৯০/৯-এ থেমেছে মোহামেডান। 

স্কোরশিটে মাত্র ৫৭ রান উঠতে ৫ উইকেট হারিয়ে দিশেহারা মোহামেডান ৫০ ওভার পার করতে পেরেছে মাহমুদউল্লাহ'র ৮৩ বলে ১ চার, ৩ ছক্কায় ৫৪, টেল এন্ডার আবু হায়দার রনি'র ১৫ বলে ১ চার, ২ ছক্কায় ২২ রানের ইনিংসের কারনে। বাঁ হাতি স্পিনার রাকিবুলের বলে বোল্ড হওয়ার আগে মাহমুদউল্লাহ তিনটি ছক্কার ২টি মেরেছেন তাসকিনকে, একটি তানভিরকে।

আবু হায়দার রনি তাসকিনকে পর পর ২ বলে মেরেছেন ছক্কা! মোহামেডান এদিন একটি জুটিতেও ফিফটি করতে পারেনি। ৬ষ্ঠ জুটিতে ৩৩, ৭ম জুটিতে ৪০, ৮ম জুটিতে যোগ করেছে ৩২ রান।

ইনফর্ম ব্যাটার অঙ্কন এই ম্যাচে মাত্র ৫ রানে ফিরে গেলে চ্যালেঞ্জিং স্কোরের পথে তৈরি হয় প্রতিবন্ধকতা। আবাহনী বোলারদের মধ্যে তানজিম হাসান সাকিব পেয়েছেন ৩ উইকেট (৩/৩১), তাসকিন পেয়েছেন ২ উইকেট (২/৫৮)। 

১৯১ রানের চ্যালেঞ্জটা সহজ করে দিয়েছে আবাহনীর দ্বিতীয় উইকেট জুটি। নাঈম শেখ-জাকের আলী অনিকের ১০৬ রানের জুটিতে বড় ব্যবধানে জয়ের আবহ পেয়েছে আবাহনী। অবিচ্ছিন্ন তৃতীয় উইকেট জুটিতে জাকের আলী-আফিফ হোসেন ধ্রুব'র  ৭৩ রানে ৮ উইকেটে জিতে উৎসব করেছে আবাহনী।

নাঈম শেখ করেছেন ৬২ বলে ৫ চার, ৩ ছক্কায় ৬৩, জাকের আলী অনিক ৯০ বলে ৪ চার, ৬ ছক্কায় ৭৮ রানে এবং ধ্রুব ৩৮ বলে ২ চার, ৩ ছক্কায় ৩৯ রানে অপরাজিত ছিলেন। মোহামেডানের বাঁ হাতি পেসার আবু হায়দার রনি (১/২৫) এবং বাঁ হাতি স্পিনার নাসুম (১/৪৭) ১টি করে উইকেট পেয়েছেন। 

টানা ২ জয়ের পর গাজী গ্রুপের কাছে ৩ রানে হারের ক্ষত শুকিয়ে টানা ৫ জয়ে পয়েন্ট তালিকায় দ্বিতীয় শীর্ষে উঠে এসেছিল মোহামেডান। ৮ম রাউন্ডে এসে দ্বিতীয় হারে শিরোপা পুনরুদ্ধারের লড়াইটা কঠিন হয়ে গেল তাদের।

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন