রবিবার, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ১৫ মাঘ ১৪২৯ , ৭ রজব ১৪৪৪

খেলা

পন্টিংকে রোহিত, বাবরকে সুবমান ছুঁয়ে ফেললেন

স্পোর্টস ডেস্ক জানুয়ারী ২৫, ২০২৩, ০০:০৬:৫৪

173
  • সুবমান গিলকে রোহিতের অভিনন্দন। ছবি-ক্রিকইনফো

ভারত : ৩৮৫/৯ (৫০.০ ওভারে)

নিউ জিল্যান্ড : ২৯৫/১০ (৪১.২ ওভারে)

ফল : ভারত ৯০ রানে জয়ী।

প্লেয়ার অব দ্য ম্যাচ : শার্দুল ঠাকুর (ভারত)।

প্লেয়ার অব দ্য সিরিজ : সুবমান গিল (ভারত)।

২-০তে এগিয়ে সিরিজের ট্রফি নিশ্চিত করেছে ভারত। ছন্দে থাকা ভারত সিরিজের শেষ ম্যাচে নিউ জিল্যান্ডকে ৯০ রানে হারিয়ে দিয়েছে হোয়াইট ওয়াশের লজ্জা (৩-০)। 

ইন্দোরে সিরিজের শেষ ম্যাচে নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে ভারত দ্বিতীয় সর্বোচ্চ স্কোর করেছে (৩৮৫/৯)। এর আগে নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে ভারতের সর্বোচ্চ স্কোর ছিল ২০০৯ সালে, ক্রাইস্টচার্চে ৩৯২/৪।

কোনো প্রতিপক্ষের বিপক্ষে ওয়ানডে ম্যাচে সর্বোচ্চ ১৯টি ছক্কার রেকর্ড এতোদিন ছিল ভারতের অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বেঙ্গালুরুতে, ২০১৩ সালে।নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে সেই রেকর্ডটি করেছে স্পর্শ ভারত।

ওপেনিং পার্টনারশিপে এদিন রোহিত শর্মা-সুবমান গিলের ২১২ নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে ভারতের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রেকর্ড। এমন একটি ম্যাচে ৫০৯ দিন পর সেঞ্চুরি (৮৫ বলে ৯ চার, ৬ ছক্কায় ১০১) করে ওয়ানডেতে লিজেন্ডারি রিকি পন্টিংয়ের ৩০টি সেঞ্চুরিকে করেছেন স্পর্শ রোহিত শর্মা। তার সামনে এখন শুধু কোহলি (৪৬টি) ও শচিন (৪৯টি)।

দারুণ ছন্দে থাকা সুবমান গিল এদিন করেছেন ৪র্থ সেঞ্চুরি উদযাপন (৭৮ বলে ১৩ চার, ৫ ছক্কায় ১১২)। সর্বশেষ ৪ ম্যাচে এটি তার তৃতীয় সেঞ্চুরি। তিন ওয়ানডে ম্যাচের সিরিজে সর্বাধিক রান সংগ্রহে (৩৬০ রান) পাকিস্তানের বাবর আজমকে ছুঁয়েছেন সুবমান গিল। ২০১৬ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাবর আজমের সংগ্রহ ছিল ৩৬০। 

সুবমান গিল-রোহিত শর্মার রেকর্ডের রাতে নিউ জিল্যান্ড পেসার জ্যাকব ডাফি ছিলেন খরুচে বোলার (১০-০-১০০-৩)। খেয়েছেন তিনি ৯ চার, ৭ ছক্কা। নিউ জিল্যান্ড বোলারদের মধ্যে ওডিআই ক্রিকেটে তার চেয়ে খরুচে বোলিংয়ের রেকর্ড আছে দু'জনের। ১৯৮৩ সালে ওভালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে স্লিডেনের বোলিং ছিল ১২-১-১০৫-২, ২০০৯ সালে ক্রাইস্টচার্চে ভারতের বিপক্ষে সাউদির বোলিং ছিল ১০-০-১০৫-১। ভারত ব্যাটারদের ব্যাটিং ঝড়ে নিউ জিল্যান্ডের টিকনার ৭৬ রান খরচায় পেয়েছেন ৩ উইকেট।

ভারতের রান পাহাড়ে চাপা পড়ে নিউ জিল্যান্ডের কনওয়ে ব্যবধান কমানোর চেষ্টা করেছেন। উদযাপন করেছেন ৩য় সেঞ্চুরি (১০০ বলে ১২ চার, ৮ ছক্কায় ১৩৮)।শার্দুল ঠাকুর পেয়েছেন ৩ উইকেট (৩/৪৫)।

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন