রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ৯ আশ্বিন ১৪২৯ , ২৮ সফর ১৪৪৪

খেলা

মেয়েদের সাফল্যে অনুপ্রাণিত ছেলেদের কম্বোডিয়া জয়

স্পোর্টস রিপোর্টার সেপ্টেম্বর ২২, ২০২২, ২০:৫৬:১১

321
  • গোলের পর রাকিব। ছবি-সংগৃহিত

বাংলাদেশ ১ : কম্বোডিয়া ০

কম্বোডিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের রেকর্ডটা ভালো। ২০০৬ থেকে ২০১৯, এই সময়ে ৪টি আন্তর্জাতিক ফুটবল ম্যাচের তিনটিতে জয়ের অতীত রেকর্ড আছে বাংলাদেশ দলের।

কম্বোডিয়ার রাজধানী নমপেন থেকে ২০১৯ সালে রায়হানের গোলে জয়ের ছবিটা এখনো ঝাপসা হয়ে যায়নি জামাল ভুঁইয়াদের চোখে। তবে র‍্যাঙ্কিংয়ে ১৮ ধাপ এগিয়ে থাকা কম্বোডিয়ার বিপক্ষে তাদের মাঠে ফিফা ফ্রেন্ডলি ম্যাচটা বাড়িয়ে দিয়েছিল জামাল ভুঁইয়াদের উপর চাপ। গত বছরের নভেম্বরে মালদ্বীপের বিপক্ষে ২-১ গোলে জয়ের পর ১০ ম্যাচ জয়হীন বাংলাদেশ দলের আত্মবিশ্বাস ফিরিয়ে আনাটা ছিল জরুরি।

তার উপর সাফ নারী চ্যাম্পিয়নশিপে সাবিনাদের হাত ধরে নারী ফুটবল দলের ইতিহাস রচনায় চাপটা একটু বেশিই বেড়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ ফুটবল দলের উপর। তবে নারী ফুটবল দলের ট্রফি জয় থেকে টনিক পেয়েছে বাংলাদেশ পুরুষ ফুটবল দল। কম্বোডিয়ার বিপক্ষে ফিফা আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে ১-০ গোলে জিতে উৎসব করেছে জামাল ভূঁইয়ারা।

খেলার শুরুতে মাঠের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে ১৩ মিনিটের মাথায় এগিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা তৈরি করেছিল জামাল ভুঁইয়ার দল। তবে বিশ্বনাথ ঘোষের থ্রো থেকে গোলপোস্টের সামনে দাঁড়ানো জামাল ভুঁইয়া ঠিক মতো পা ছোঁয়াতে পারেননি। অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়েছে সে প্রচেষ্টা।

তবে এই গোলের সুযোগ অপচয় করে এগিয়ে যেতে খুব বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়নি। ১০ মিনিট পর এগিয়ে গেছে বাংলাদেশ। ২৩ মিনিটের মাথায় মতিন মিয়ার পাস থেকে বল পেয়ে ডি বক্সের উপর থেকে ডান পায়ের তীব্র শটে কম্বোডিয়ার গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন রাকিব (১-০)। 

খেলার ৭৬ মিনিটের মাথায় ব্যবধান দ্বিগুণ করতে পারতো বাংলাদেশ। তবে মতিন মিয়ার শট গোলবারে লেগে ফিরে আসে। দ্বিতীয়ার্ধে সমতার আপ্রান্ত চেষ্টা করেও বিফল হয় কম্বোডিয়া। স্পেনিশ কোচ কাবায়েরোর অধীনে বাংলাদেশের এটি প্রথম জয়।

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন