শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ , ২০ রবিউস সানি ১৪৪৩

খেলা

দুই বছর পর মুশফিকের হাফসেঞ্চুরি, দারুণ খেললেন নাঈম

ক্রীড়া ডেস্ক অক্টোবর ২৪, ২০২১, ১৭:৫৪:৩১

307
  • ছবি: ইন্টারনেট

বেশ কিছুদিন ধরেই ব্যাট হাতে নিজেকে ঠিক মেলে ধরতে পারছিলেন না মুশফিকুর রহিম। অবশেষে রোববার বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলেভের প্রথম ম্যাচে ব্যাটে হাতে ঝড় তুললেন এ তারকা। শ্রীলঙ্কান বোলারদের একহাতে শাসন করে এ ডানহাতি দুই বছর পর টি-টোয়েন্টিতে দেখা পেলেন হাফসেঞ্চুরির। এদিকে তৃতীয় উইকেটে তার সঙ্গে দুর্দান্ত খেলেন ওপেনার নাঈম শেখ। তিনিও হাফসেঞ্চুরির দেখা পান। যে কারণে লঙ্কানদের  সামনে ১৭২ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর দাঁড় করিয়েছে টিম টাইগার্স। 

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে নিজেদের প্রথম ম্যাচে রোববার নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেটে ১৭১ রান করেছে বাংলাদেশ। মুশফিক ৫৭ ও নাঈম করেন ৬২ রান। 

শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে রোববার টস হেরে আগে ব্যাট করতে শুরুতে বেশ ধীরেই পথ চলছিল বাংলাদেশ। পরে অবশ্য নাঈম শেখ ও লিটন দাসের ওপেনিং জুটিতে ভর করে পাওয়ার প্লেতে ৪০ রান করে টিম টাইগার্স। এরপরেই ফিরেন লিটন। সাকিব আল হাসানও দ্রুতই বিদায় নেন। এমন এক অবস্থায় নাঈমকে নিয়ে দলের হাল ধরেন মুশফিকুর রহিম। শুরু থেকেই এ তারকা তোলেন ঝড়। এক পর্যায়ে মাত্র ৩২ বলে ৪ চার ও ২ ছয়ে তিনি পৌঁছে যান হাফসেঞ্চুরিতে। এরমধ্যে মুশি তৃতীয় উইকেটে নাঈমের সঙ্গে গড়ে তোলেন ৭৩ রানের জুটি। এরমধ্যে নাঈম শেখও তুলে নেন হাফসেঞ্চুরি। শেষ পর্যন্ত নাঈমের ইনিংস থামে ৬২ রানে। আর মুশি ৩৭ বলে ৫ চার ও ২ ছয়ে অপরাজিত থাকেন ৫৭ রানে। 

সব মিলিয়ে দুই বছর পর টি-টোয়েন্টিতে মুশফিক পেলেন হাফসেঞ্চুরির দেখা। এরআগে ৩ নভেম্বর ২০১৯ সালে ভারতের বিপক্ষে সর্বশেষ ফিফটির দেখা পেয়েছিলেন তিনি। ইনিংসের হিসেবে সংখ্যাটা ১১। ভারতের বিপক্ষে ওই ম্যাচে ৬০ রানে অপরাজিত ছিলেন মুশফিক। সেই ম্যাচে দল জয়ও পেয়েছিলেন।  

নিউজজি/সিআর

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন