শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৮ আশ্বিন ১৪২৮ , ১৫ সফর ১৪৪৩

খেলা

বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া সিরিজে করোনার হানা

শামীম চৌধুরী জুলাই ২৬, ২০২১, ১৯:২৩:৪৬

  • বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড ও ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার লোগো।-সংগৃহিত

আগামী ৩ থেকে ৯ আগস্ট শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠেয় ৫ ম্যাচের টি-২০ সিরিজে অংশ নিতে ২৯ জুলাই ঢাকায় পা রাখার কথা অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের।

জিম্বাবুয়ে সফরে সফল তিনটি সিরিজ শেষে একই দিনে ঢাকায় অবতরণ করার কথা বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের। বিমানবন্দর থেকে নেমে অন্য কোথায় বিরতি না নিয়ে সরাসরি টিম হোটেলে চেক ইন করার কথা দল-দুটির।

তবে এই সিরিজকে সামনে রেখে বাংলাদেশ এবং অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের আগমনের ৯ দিন আগেই হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে শুরু হয়েছে ম্যাচ অফিসিয়াল, মেডিকেল টিম,টিভি ক্রু, বল বয়সহ,মাঠে দায়িত্ব পালনরতদের কোয়ারেন্টিন।

জৈব সুরক্ষায় অনুষ্ঠেয় এই সিরিজকে সামনে রেখে গত ২০ জুলাই থেকে রাজধানীর অন্যতম এই পাঁচতারা হোটেলকে বরাদ্দ নিয়েছে বিসিবি। সেদিন থেকেই শুরু হয়েছে সিরিজ আয়োজনে মাঠে সরাসরি সংশ্লিষ্টদের কোয়ারেন্টিন। ঈদ উল আজহার জন্য পর্যন্ত হোটেল থেকে বাসায় যাওয়ার অনুমতি পায়নি দায়িত্বরতদের কেউ। হোটেলের কঠোর কোয়ারেন্টিন দেখভাল করছেন ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রটোকল অফিসার। প্রতিদিন কোয়ারেন্টিনে থাকা সবার রিপোর্ট তার কাছে জমা দিতে হচ্ছে। 

৫ ম্যাচের টি-২০ সিরিজের জন্য মোট ৯ বার দিতে হবে করোনা পরীক্ষা। একটি পরীক্ষার রিপোর্টে পজিটিভ এলে সঙ্গে সঙ্গে হোটেল থেকে বেরিয়ে যেতে হবে তাকে। এই কঠোর শর্ত পালনে করোনা পরীক্ষা দিয়ে চেক ইন করতে হয়েছে সবাইকে গত ২০ জুলাই। গত ৬ দিনে তিনবার হয়েছে করোনা পরীক্ষা। তবে করোনা পরীক্ষায় নেগিটিভ হয়ে হোটেলে চেক ইন করে হোটেলের চার দেয়ালের মধ্যে ঈদ উদযাপন করেও পরবর্তী পরীক্ষার রিপোর্টে পজিটিভ হওয়ায় চেক আউট করতে হয়েছে।

বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া সিরিজে করোনার হানা দেয়ার মতো ঘটনা ঘটেছে। আম্পায়ার্স লিয়াঁজো অফিসার সাইফুল ইসলাম জুয়েলের নমুনা পরীক্ষায় তৃতীয় পিসিআর টেস্টের রিপোর্টে পজিটিভ আসায় শনিবার হোটেল ছেড়ে দিতে হয়েছে তাকে।

বিশ্বস্ত এক সূত্র এ সত্যতা নিশ্চিত করেছেন-'বায়ো বাবলে অনুষ্ঠেয় এই সিরিজ পরিচালনায় ম্যাচ রেফারি নিয়ামুর রশিদ রাহুল,রিজার্ভ ম্যাচ রেফারি আখতার আহমেদ শিপার,আম্পায়ার শরফুদ্দৌলা ইবনে শহীদ সৈকত,মাসুদুর রহমান মুকুল,তানভীর আহমেদ,গাজী সোহেল,মোর্শেদ আলী খান সুমনের সঙ্গে আম্পায়ার্স লিয়াঁজো অফিসার সাইফুল ইসলাম জুয়েল হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে উঠেছিল গত ২০ জুলাই। প্রথম এবং দ্বিতীয় কোভিড-১৯ টেস্টে ওর রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে।পরশু দিন তৃতীয় টেস্টে পজিটিভ আসায় হোটেল ছেড়ে দিতে হয়েছে।' 

২টি পরীক্ষার রিপোর্টে নেগেটিভ আসার পর তৃতীয় পরীক্ষার রিপোর্টে পজিটিভ শুধু সাইফুল ইসলাম জুয়েলের একারই নয়, আরও একজনের এসেছে বলে জানিয়েছেন তিনি। আম্পায়ার্স লিয়াজোঁ অফিসার সাইফুল ইসলাম জুয়েলের পরিবর্তে এই দায়িত্ব কাউকে দেয়া যাচ্ছে না বলেও জানিয়েছেন তিনি-' বাংলাদেশ এবং অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট স্কোয়াডের বাইরে ২০ জুলাই-এর পর কাউকে হোটেলে চেক করতে দেয়া হবে না। অস্ট্রেলিয়ার প্রটোকল অফিসার এ শর্তই দিয়েছেন। সব কিছু তিনিই হোটেলে বসে মনিটরিং করেছেন। মুশফিকুর রহিম টি-২০ সিরিজে ফিরতে চেয়েও ফিরতে পারেননি এই কঠোর শর্তের কারনে। তাই আম্পায়ার্স লিয়াঁজো অফিসারের স্থলাভিষিক্ত অন্য কাউকে করা যাচ্ছে না।'

আম্পায়ার্স লিয়াঁজো অফিসারের কাজ কম নয়। আম্পায়ার এবং ম্যাচ রেফারিদের সকল কাজের সমন্বয়ক তিনি। ম্যাচ অফিসিয়ালদের ক্যাটারিং,ট্রান্সপোর্ট-এর দেখভাল ছাড়াও ডাওয়ার্থ-লুইস মেথড পেপার্স দুই দলকে পৌছে দেয়ার কাজ তার। এই পদে কাউকে স্থলাভিষিক্ত করতে না পারায় তার কাজগুলো আম্পায়ার্স প্যানেলে থাকা অন্যদের করতে হবে বলে জানিয়েছেন ওই বিশ্বস্ত সূত্র।

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
        
copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers