শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ , ৯ জুমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

অন্যান্য
  >
একুশে বইমেলা

পেন্ডুলামের নতুন বই

আবু নাসিব ১ মার্চ , ২০২২, ১৮:৫৯:৫০

  • রিফাত আনজুম পিয়া। ছবি: লেখকের অনুমতি সাপেক্ষে ফেসবুক থেকে নেয়া।

‘পেন্ডুলাম’ যা সামনে পেছনে দুলতে থাকে। অতীত-বর্তমান-ভবিষ্যৎ  ছুঁয়ে যওয়াই কি পেন্ডুলামের লক্ষ্য? তা প্রকাশক রুম্মান তার্শিফিকই ভালো বলতে পারবেন।  এই নিয়ে তৃতীয় বইমেলা। এরই মধ্যে তারা যথেষ্ট দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিয়েছে। বই বাছাই, বাধাই, প্রচ্ছদ, কাগজে যথেষ্ট রুচিশীলতার পরিচয় পাওয়া যায়। লেখা নির্বাচনের দিকে লক্ষ্য করলে বোঝা যায় তারা প্রতিশ্রুতিশীল। যেখানে, গুটি কয় লেখক ব্যাতীত অধিকাংশ লেখক রয়ালিটি পান না। আবার কোনও কোনও লেখককে নিজের টাকায় বই বের করে—মাত্র বিশ কপি বই পেয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয়। সেখানে পেন্ডুলাম নাকি আগেই চুক্তি করে নেয় লেখকের রয়ালিটি ঠিক কত পার্সেন্ট হবে? যদি তাই হয় তবে বলতে হবে প্রকাশনার জগতে পেন্ডুলাম একটি ধাক্কা। আশা করি এ ধক্কা একদিন ভূমিকম্পে রূপান্তরিত হবে এবং পরিবর্তন আনবে।

এবারের মেলায় পেন্ডুলামের নতুন বই রিফাত আনজুম পিয়ার ‘তখন গল্পের তরে’, কখন গল্পের তরে? যখন ডানার রৌদ্রের গন্ধ মুছে চিল, যখন সব পাখি ঘরে আসে, সব নদী ফুরায় জীবনের সব লেনদেন। অর্থাৎ যখন সব কাজ শেষ হয় তখনইতো গলে্পর ফুরসৎ। তখনইতো নিবিড়ভাবে মুখোমুখি বসার সময়।

 

বইপাগল বাবার কাছ থেকে তার বইয়ের প্রতি আগ্রহ। পরবর্তীতে পেয়েছে বরেণ্য লেখক-অধ্যাপক আবদুল্লহ আবু সায়ীদের সান্নিধ্য। এইসব পথপরিক্রমায় তিনি গড়ে উঠেছেন লেখক হয়ে। তাই তার লেখায়, পরিশীলন ও রুচিশীলতার ছাপ থাকাটা স্বাভাবিক।

তার বইটি মেলায় পেন্ডুলামে (৫০২ নম্বর স্টল) পাওয়া যাবে। অগ্রহী পাঠকরা খোঁজ নিতে পারেন। বই আপনার জীবনকে দীপান্বিত করুক।        

নিউজজি/নাসি 

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন