মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ , ১৫ শাওয়াল ১৪৪৩

Untitled Document
অন্যান্য
  >
করোনাভাইরাস

করোনায় মানুষের চিকিৎসা ব্যয় আগের চেয়ে বেড়েছে

নিউজজি ডেস্ক ১৯ জানুয়ারি , ২০২২, ০১:০৫:২৩

143
  • করোনায় মানুষের চিকিৎসা ব্যয় আগের চেয়ে বেড়েছে

ঢাকা: করোনা সংক্রমণ শুরু হবার পর মানুষের চিকিৎসা ব্যয় আগের চেয়ে বেড়েছে। সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে গিয়ে আগে যেখানে নিজের পকেট থেকে খরচ হতো মোট ব্যয়ের ৬৭ ভাগ, করোনার কারনে সেটা দেড় শতাংশ বেড়ে হয়েছে ৬৮ দশমিক ৫ ভাগ। বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা ব্যয় আরও বেশি। ওষুধের দাম বৃদ্ধি ও ব্যবসায়িক মানসিকতাকেই এজন্য দায়ি করছেন বিশেষজ্ঞরা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাস্থ্য অর্থনীতি ইউনিটের অধ্যাপক সৈয়দ আব্দুল হামিদ জানান, স্বাস্থ্যসেবা খাতে বিভিন্ন সূচকে বাংলাদেশ বিশ্ব দরবারে সুনাম অর্জন করলেও, সেবা নিতে গিয়ে মানুষের খরচের পরিমাণ কমানো যায়নি। এখনও গ্রামঞ্চলের বেশিরভাগ মানুষকে ছুটতে হয় শহরের হাসপাতালে। আবার শহরে সরকারি হাসপাতালে জায়গা না পেয়ে যেতে হয় বেসরকারি হাসপাতালে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য অর্থনীতি ইউনিটির এক জরিপে বলা হয়েছে, প্রতিটি মানুষের বাৎসরিক আয়ের ১০ ভাগ বরাদ্দ থাকে চিকিৎসার জন্য। সরকারি হাসপাতালে বিনামূলে বা স্বল্পমূল্যে চিকিৎসা পাবার কথা থঅকলেও সেখানে মানুষের পকেট থেকে খরচ হয় মোট ব্যয়ের ৬৭ শতাংশ। যার ৬৪ ভাগই ওষুধের ব্যয়। সরকারি হাসপাতাল থেকে মাত্র ৩ শতাংশ রোগি ওষুধ পান। আর পরীক্ষা-নিরীক্ষার সুযোগ পান ১৪ দশমিক ৯ শতাংশ মানুষ।

গতবছর সরকারি ও বেসরকারি ৬টি হাসপাতালে ভর্তি করোনা রোগির তথ্য বিশ্লেষণ করে জরিপের প্রতিবেদনে বলা হয়, সরকারি হাসপাতালে যতো রোগি ভর্তি হয় তার মাত্র ৬ শতাংশের আইসিইউ সাপোর্ট দরকার হয়। আর বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি রোগির আইসিইউ দরকার হয় ৩২ শতাংশ। জনপ্রতি খরচও বেসরকারি হাসপাতালে বেশি। সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে গিয়ে আর্থিক বিপর্যয়ে পড়েন সাড়ে ৩ ভাগ মানুষ। বেসরকারি হাসপাতালে এই সংখ্যা ৫৮ দশমিক ৬ শতাংশ। অর্থাৎ প্রতি ২ জনের মধ্যে একজন।

এই বৈষম্য দূর করতে সরকারি হাসপাতালে সেবা বাড়ানোর পাশাপাশি বেসরকারি হাসপাতালের চিকিৎসা ব্যয় একটা নীতিমালা ও তদারকির আওতায় আনার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা।

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন