শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১ আশ্বিন ১৪২৮ , ৮ সফর ১৪৪৩

ফিচার
  >
মানচিত্র

সুলতান সুলেমানের দেশ তুরস্ক

নিউজজি ডেস্ক ৭ আগস্ট , ২০১৮, ১২:১২:৩০

  • সুলতান সুলেমানের দেশ তুরস্ক

তুরস্ক বিশ্ব মুসলমানদের ইতিহাসে অত্যন্ত পরিচিত, সমৃদ্ধ এবং গুরুত্বপূর্ণ একটি জনপদের নাম। তুরস্ক পূর্ব ইউরোপের একটি রাষ্ট্র। তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারা। তুরস্কের বৃহত্তম শহর ইস্তানবুল। তুরস্ক বর্তমানে একটি আধুনিক, গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র। এখানকার অধিকাংশ লোকের ধর্ম ইসলাম এবং মুখের ভাষা তুর্কি ভাষা।

তুরস্কের ইতিহাস দীর্ঘ ও ঘটনাবহুল। প্রাচীনকাল থেকে বহু বিচিত্র জাতি ও সংস্কৃতির লোক এলাকাটি দখল করেছে। ১৯০০ খ্রিস্টপূর্বাব্দের দিকে এখানে হিটাইটদের বাস ছিল। তাদের সময়েই এখানে প্রথম বড় শহর গড়ে ওঠে। এরপর এখানে ফ্রিজীয়, গ্রিক, পারসিক, রোমান এবং আরবদের আগমন ঘটে। মধ্য এশিয়ার যাযাবর তুর্কি জাতির লোকেরা ১১শ শতকে দেশটি দখল করে এবং এখানে সেলজুক রাজবংশের পত্তন করে। তাদের শাসনের মাধ্যমেই এই অঞ্চলের জনগণ তুর্কি ভাষা ও সংস্কৃতির সাথে মিশে যায়। ১৩শ শতকে মোঙ্গলদের আক্রমণে সেলজুক রাজবংশের পতন ঘটে। ১৩ শতকের শেষ দিকে এখানে উসমানীয় সাম্রাজ্যের পত্তন হয়। এরা পরবর্তী ৬০০ বছর তুরস্ক শাসন করে এবং আনাতোলিয়া ছাড়িয়ে মধ্যপ্রাচ্য, পূর্ব ইউরোপ এবং উত্তর আফ্রিকার এক বিশাল এলাকা জুড়ে বিস্তৃতি লাভ করে। প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পর সাম্রাজ্যটির পতন ঘটে। ১৯২৩ সালে উসমানীয় সাম্রাজ্যের তুর্কিভাষী এলাকা আনাতোলিয়া ও পূর্ব থ্রাস নিয়ে মুস্তাফা কেমাল (পরবর্তীতে কেমাল আতাতুর্ক)-এর নেতৃত্বে আধুনিক তুরস্ক প্রজাতন্ত্রের প্রতিষ্ঠা হয়।

তুরস্ক মোটামুটি চতুর্ভুজাকৃতির। এর পশ্চিমে এজীয় সাগর ও গ্রিস; উত্তর-পূর্বে জর্জিয়া, আর্মেনিয়া ও স্বায়ত্বশাসিত আজারবাইজানি প্রজাতন্ত্র নাখচিভান; পূর্বে ইরান; দক্ষিণে ইরাক, সিরিয়া ও ভূমধ্যসাগর। তুরস্কের রয়েছে বিস্তৃত উপকূল, যা দেশটির সীমান্তের তিন-চতুর্থাংশ গঠন করেছে। তুরস্কের ভূমিরূপ বিচিত্র। দক্ষিণ-পূর্ব ও উত্তর-পশ্চিমে আছে উর্বর সমভূমি। পশ্চিমে আছে উঁচু, অনুর্বর মালভূমি। পূর্বে আছে সুউচ্চ পর্বতমালা। দেশের অভ্যন্তরের জলবায়ু চরমভাবাপন্ন হলেও ভূমধ্যসাগরের উপকূলীয় অঞ্চলের জলবায়ু মৃদু।

ইউরোপ সঙ্গমস্থলে অবস্থিত বলে তুরস্কের ইতিহাস ও সংস্কৃতির বিবর্তনে বিভিন্ন ধরনের প্রভাব পড়েছে। গোটা মানবসভ্যতার ইতিহাস জুড়েই তুরস্ক এশিয়া ও ইউরোপের মানুষদের চলাচলের সেতু হিসেবে কাজ করেছে। নানা বিচিত্র প্রভাবের থেকে তুরস্কের একটি নিজস্ব পরিচয়ের সৃষ্টি হয়েছে এবং এই সমৃদ্ধ সংস্কৃতির প্রভাব পড়েছে এখানকার স্থাপত্য, চারুকলা, সঙ্গীত ও সাহিত্যে। গ্রামীণ অঞ্চলে এখনও অনেক অতীত ঐতিহ্য ও রীতিনীতি ধরে রাখা হয়েছে। তবে তুরস্ক বর্তমানে একটি আধুনিক, গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র। এখানকার অধিকাংশ লোকের ধর্ম ইসলাম এবং মুখের ভাষা তুর্কি ভাষা।

বর্তমান সময়ে পর্যটকদের ভ্রমণের জন্য একটি আকর্ষণীয় জায়গার নাম তুরস্ক । মোটামুটি খরচে অটোমান সাম্রাজ্য এর ইতিহাস-ঐতিহ্যের এই তুরস্ক হতে পারে ঘোরাঘুরির জন্য আদর্শ।

তুর্কীর হিয়েরাপোলিশ শহরের ধ্বংসাবশেষের বিভিন্ন চিত্র ফ্রিজিয়ার কোনও এক সময়কার একটি সুপ্রাচীন শহর হিয়েরাপোলিস, তার খ্রীষ্ট-পূর্ব দ্বিতীয় শতকের প্রাকৃতিক উষ্ণ প্রসবণের জন্য পরিচিত। এই অঞ্চলটি রোমান স্নানাগার, একটি গ্রন্থাগার, ব্যায়ামাগার, ১২০০০-আসন বিশিষ্ট আ্যম্ফিথিয়েটার, একটি কবরস্থান ও বহু মন্দিরের সমন্বয়ে গঠিত। হিয়েরাপোলিস, আধুনিক-কালের তুরস্কে অবস্থিত এবং পর্যটন আকর্ষণের আবাসস্থলটি পামূক্কালে নামে অভিহিত (তুরস্কে অর্থ হল “তুলোর দুর্গ”), যেখানে পর্যটকেরা উষ্ণ প্রসবণে সাঁতার কাটতে পারেন এবং ট্রাভেরটাইন সোপান অন্বেষণ করতে পারেন। 

হ্যাগিয়া সোফিয়া একটি অত্যন্ত সুন্দর ও গুরুত্বপূর্ণ স্থাপত্য নিদর্শন, এটি একসময় একটি গির্জা হিসাবে ব্যবহৃত হত। পরবর্তীকালে এটি একটি মসজিদে রূপান্তরিত হয় এবং তারপর ১৯৩৫ সালে এটি তুরস্ক মিউজিয়ামে রূপান্তরিত হয়। ইস্তানবূলের শহরটি বাইজানটাইন ও অট্টোমান এই উভয় সাম্রাজ্য থেকেই সংস্কৃতি বহন করে এনেছিল এবং এই মিউজিয়ামটিও এই যুগলবন্দীর এক নিঁখুত সমন্বয় হিসাবে বিবেচিত হয়। ১৯৮৫ সালে হ্যাগিয়া সোফিয়া, ইউনেস্কো দ্বারা বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থান হিসাবে মনোনীত হয়। 

কাপ্পাদশিয়া অত্যাশ্চর্য্য ভূ-প্রকৃতি হল হট এয়্যার বেলুনে চড়ে আনন্দ উপভোগের জন্য শ্রেষ্ঠ স্থান বিশ্বে এমন কিছু স্থান রয়েছে যেখানে আপনি একটি গুহার মধ্যে নিশ্চিন্তে রাত্রিতে নিদ্রাযাপন করতে পারেন এবং তুরস্কের কাপ্পাদশিয়া হল এগুলির মধ্যে এক অন্যতম। এখানকার ভূ-প্রাকৃতিক দৃশ্য অত্যাশ্চর্য্য এবং প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য উপভোগ করার সবচেয়ে জনপ্রিয় উপায় হল একটি হট এয়্যার বেলুনে চড়ে উপলব্ধি নেওয়া। অঞ্চলটির ভূ-প্রাকৃতিক দৃশ্য প্রায় 3 কোটি বছরের প্রাচীন গঠন, যেটি অগ্ন্যূৎপাতের ফলে ছাই দ্বারা আবৃত ছিল। 

ছবি ও তথ্য – ইন্টারনেট 

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
        
copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers