মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮ , ৪ জিলকদ ১৪৪২

ফিচার
  >
ইতিহাস ও ঐতিহ্য

বাঙ্গালির দাবি নস্যাৎ করার কোন শক্তি নেই: বঙ্গবন্ধু

নিউজজি ডেস্ক ২৪ মার্চ , ২০২১, ১২:৪৮:৩১

  • বাঙ্গালির দাবি নস্যাৎ করার কোন শক্তি নেই: বঙ্গবন্ধু

ঢাকা: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর বছর ২০২০। তাঁর শততম জন্মবার্ষিকীর দিন, ১৭ই মার্চ থেকে শুরু হয়েছে মুজিববর্ষ উদযাপন। স্বাধীন বাংলাদেশ ও বঙ্গবন্ধু একাত্মা। তিনিই একাত্তরের ২৬শে মার্চ স্বাধীনতা ঘোষণা করেন। তাঁর ডাকেই মানুষ স্বাধীনতার জন্য সশস্ত্র যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছিল। বাংলাদেশের স্বাধীনতার দ্বারে পৌঁছানোর আগের বছরটি কেমন কেটেছিল বঙ্গবন্ধুর। 

একাত্তরের ২৪শে মার্চ সকালে ঢাকায় ধানমন্ডি বত্রিশ নম্বরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিববুর রহমানের বাড়িতে তাঁর সাথে বৈঠক করেন পশ্চিম পাকিস্তানের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা। বৈঠক শেষে বাইরে অপেক্ষারত জনশ্রোতের উদ্দেশ্যে শেখ মুজিব বক্তব্য রাখেন। বলেন, “আমার মাথা কেনার শক্তি কারো নেই। বাংলার মানুষের সাথে, শহীদের রক্তের সাথে আমি বেঈমানী করতে পারবো না। আমি কঠোরতর সংগ্রামের নির্দেশ দেয়ার জন্য বেঁচে থাকবো কি না জানি না। দাবী আদায়ের জন্য আপনারা সংগ্রাম চালিয়ে যাবেন।” (সূত্রঃ ২৫ মার্চ, ১৯৭১; দৈনিক ইত্তেফাক)

২৪শে মার্চ ষড়যন্ত্রের নীলনকশা অনুসারে সর্বশেষ ছোবলের পরিকল্পনা চুড়ান্ত করে বাঙালীর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রকারী ভুট্টো-ইয়াহিয়া। ঢাকা সেনানিবাসের ইস্টার্ন সদর দফতরে স্বাধীনতার জন্য উদগ্রীব বাঙ্গালি জাতিকে নিধন করতে সামরিক অপারেশন সার্চ লাইটের অনুমোদন দেন প্রেসিডেন্ট ইয়াহিয়া খান। অপারেশন সার্চ লাইট সম্পর্কে অবহিত করতে মেজর জেনারেল খাদিম হোসেন রাজা ও রাও ফরমান আলী দুটি হেলিকপ্টারে করে তৎকালীন পশ্চিম পাকিস্তান অর্থাৎ বর্তমান বাংলাদেশের সবকটি ক্যান্টনমেন্টে গিয়ে ব্রিগেড কমান্ডারদের নির্দেশ দিয়ে আসে।

ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় ২৪শে মার্চ সন্ধ্যা থেকে ছোট পরিসরে বিচ্ছিন্ন ধ্বংসযজ্ঞ শুরু করে পাকিস্তানি সামরিক বাহিনী। সারাদেশে শান্তিপূর্ণভাবে পতাকা উত্তোলন হলেও ঢাকার মিরপুরে ১০নম্বর সেক্টরে একটি বাড়ির ওপর থেকে ভয়ভীতি দেখিয়ে পতাকা সরানো হয়। পরে সেখানে বোমা হামলা করে সেনাবাহিনী। এছাড়াও রঙ্গপুর, দিনাজপুর, যশোর, গাজীপুরসহ বিভিন্ন এলাকায় বাঙ্গালি নিধনযজ্ঞ চালাতে গেলে সেনাবাহিনী ও জনতার মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। 

দেশের বিভিন্ন এলাকায় সংঘটিত হত্যাযজ্ঞের খবর ঢাকায় পৌঁছালে ধানমন্ডি বত্রিশ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর বাড়ির সামনে জড়ো হয় হাজারও উত্তেজিত জনতা। সেখানে শেখ মুজিব বলেন, “আমি বেঁচে থাকবো কিনা জানি না। যত ষড়যন্ত্রই হোক বাঙ্গালির দাবি নস্যাৎ করার কোন শক্তি নেই।” (সূত্রঃ ২৫ মার্চ, ১৯৭১; দৈনিক ইত্তেফাক)

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers