বৃহস্পতিবার, ৩০ নভেম্বর ২০২৩, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪৩০ , ১৭ জুমাদিউল আউয়াল ১৪৪৫

ফিচার
  >
ফেসবুক কর্ণার

‘ক্লিক আর ভিউয়ের কাঙালপনা ছেড়ে নিজের কাজটা করুন’

নিউজজি ডেস্ক ২৪ আগস্ট , ২০২১, ১৪:০৩:২৭

847
  • জয় শাহরিয়ার। ছবি: ইন্টারনেট

এ সময়ের শিল্পীদের ওপর এত বিরাগভাজন কেন আপনারা? আমাদের এই সময়টাকে বাদ দিয়ে শুধু আগের সময়টাকে নিয়ে বাংলা গান বা শিল্প, সাহিত্য কিছু বেঁচে থাকবে?

একটা সময়ের সাথে আরেকটা সময়ের কখনো তুলনা হয় না। শিল্পচর্চা ও এর বিকাশ একটা চলমান প্রক্রিয়া। সময় হয়তো সব সময় সমান যায় না। তবে প্রতিটা সময়ের সৃষ্টি এই পুরো পথচলায় সমান গুরুত্বপূর্ণ। চটে গিয়ে ঠিক এভাবেই ফেসবুক স্ট্যাটাসে কথাগুলো লিখেছেন সংগীতশিল্পী জয় শাহরিয়ার।

তিনি আরো লিখেন, লালন, রবীন্দ্রনাথ, খান আতা, আলাউদ্দিন আলী, মাকসুদুল হক সবাই যার যার সময়ে অসাধারণ। তাঁরা এবং তাঁদের সময়ের অন্যরা নিজেদের মতোন বাংলা গানকে সমৃদ্ধ করেছেন বলেই আজকের বাংলা গান এত সমৃদ্ধ।

আমরা ছোটবেলায় যখন মুগ্ধ হয়ে বাচ্চু ভাই, জেমস ভাইয়ের গান শুনতাম তখন অনেকেই বলতেন এসব গান হারিয়ে যাবে। তিরিশ বছর পেরিয়ে গেছে, ‘সেই তুমি’ কিংবা ‘দুঃখিনী দুঃখ করো না’ টিকেই গেছে। আজকে যার উদাহরণ দিয়েছেন সফল হিসেবে সেই প্রিন্স মাহমুদের স্বর্ণালী সময়ে কয়বার ফিচার ছেপেছেন তাকে নিয়ে? 

যথাযথ সম্মান পেয়েছেন তিনি তার কাজের? পান নি। এখন আসছেন তাকে সার্টিফিকেট দিতে। দরকার নাই ওনার আপনাদের সার্টিফিকেটের। আমরা জানি আমাদের গানে প্রিন্স মাহমুদের জায়গা কতটা জুড়ে।

অতএব, এই যে বলছেন আমাদের সময়ে আমাদের কাজ মানোত্তীর্ণ না, তাড়াহুড়ো করবেন না। সময়কে সময় দিন। মহাকাল ঠিক লিখে রাখবে তাদের নাম যারা যোগ্য।

আপনারা বরং চেষ্টা করুন আপনাদের কাজটা ঠিকমত করতে। সবার কিছু দায়িত্ব থাকে। ক্লিক আর ভিউয়ের কাঙালপনা ছেড়ে নিজের কাজটা করুন। অন্যেরটাও করতে দিন। এই সময়ের সিনা হাসান, জুনায়েদ ইভান, আসির আরমানদের নিয়ে ভালোমতো ফিচার করেছেন কখনো? করেন নাই। ওরা তো আর জি বাংলার বিতর্কিত শিল্পী না, ওদের খবর ছাপাবেন কেন? 

শুনেছি যে দেশে গুণের কদর হয় না সে দেশে নাকি গুণী জন্মায় না। আমাদের দেশে গুণের কদর ব্যাপারটা বন্ধ হবার পথে। সুতরাং, গুণীরাও আর জন্মাবে না সেভাবে অদূর ভবিষ্যতে সেই সূত্রমতে।

নিউজজি/রুআ

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন