সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১ , ৬ শাওয়াল ১৪৪৫

ফিচার
  >
ফেসবুক কর্ণার

তারকার নাম ভাঙিয়ে কাজ বিক্রি বন্ধ হোক: চঞ্চল চৌধুরী

নিউজজি প্রতিবেদক ২৯ জুন , ২০২১, ১৬:২০:৪৪

846
  • তারকার নাম ভাঙিয়ে কাজ বিক্রি বন্ধ হোক: চঞ্চল চৌধুরী

নাটক, সিনেমা কিংবা গানের প্রচারণা বা প্রকাশনায় এখন তারকার নাম বেশি ব্যবহৃত হয়। কিন্তু নির্মাতা বা চিত্রনাট্যকারের নাম থেকে যায় গুরুত্বের পেছন সারিতে। গণমাধ্যমেও তারকাদের নামেই কাজের খবর প্রকাশিত হয়।

এমনটা উচিৎ নয় বলে মনে করেন দেশের অন্যতম সফল ও জনপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী। মঙ্গলবার নিজের ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়ে বেশ কিছু কথা বলেছেন তিনি।

চঞ্চল লিখেছেন, একটা সময় পর্দায় লেখা হতো- সত্যজিৎ রায়ের ‘পথের পাঁচালী’ বা হুমায়ুন আহমেদের ‘শঙ্খনীল কারাগার’ বা মামুনুর রশীদের নাটক বা মোস্তফা সরোয়ার ফারুকীর ‘ডুব’ বা সালাউদ্দিন লাভলু’র নাটক..ব্লা ব্লা ব্লা। এরকম মেনে নিতে আপত্তি নেই। কারণ যাঁর লেখা, তারই ডিরেকশান হলে এটা লেখা যায়।

কিন্তু ইদানীং দেখি, দেশী বা বিদেশী ওটিটি প্লাটফর্মগুলোতে শিল্পীর নামে লেখা হয়, অমুকের নাটক বা ওয়েব সিরিজ। যেহেতু শিল্পীদেরকেই দর্শকরা বেশী চেনেন, সেই ব্যবসায়িক সুযোগটা নেবার জন্য এরকম লেখা হচ্ছে। এবার বলুন তো, একটি নাটক বা সিনেমার মালিকানা কার? আসলে প্রডিউসারের।

 

 

প্রচারের সার্থে যদি ডিরেক্টরের নাম যায়, তাও মেনে নেয়া যায়। যেমন গিয়াস উদ্দিন সেলিমের সিনেমা ‘মনপুরা’ বা অমিতাভ রেজার ‘আয়নাবাজি’। কিন্তু যদি লেখা হয় চঞ্চল চৌধুরীর ‘তাকদীর’। আমি বলবো- এটা ঠিক নয়। ‘তাকদীর’ সৈয়দ শাওকী’র বা হৈ চৈ-এর। আমি এতে অভিনয় করেছি মাত্র। লিখলে এটুকুই লিখবেন- চঞ্চল চৌধুরী অভিনীত, ‘তাকদীর’।

আর স্ক্রিপ্ট রাইটারদের কথা কি বলবো? তারা তো সর্বদাই অবহেলিত। যার যার প্রাপ্তি তার তার হোক। নাম বেচা বন্ধ হোক। স্টারের নাম ভাঙিয়ে প্রোডাকশন বিক্রি বা প্রচার বন্ধ হোক। নাটক বা সিনেমা টিম ওয়ার্ক। এটা মনে রাখলেই চলবে।

 

 

নিউজজি/কেআই

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন