রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ৯ আশ্বিন ১৪২৯ , ২৮ সফর ১৪৪৪

বিনোদন

প্রেমিকের সঙ্গে সালওয়ারের মনোমালিন্যের অবসান: নেপথ্যে রহস্য কী?

নিউজজি প্রতিবেদক  সেপ্টেম্বর ২২, ২০২২, ১৯:৩৫:২৩

269
  • ছবি: সংগৃহীত

সদ্য ‘বীরত্ব’ সিনেমার মাধ্যমে বড় পর্দায় অভিষিক্ত হয়েছেন চিত্রনায়িকা নিশাত নাওয়ার সালওয়া। বিভিন্ন প্রেক্ষাগৃহে চলছে সাইদুল আলম রানা পরিচালিত সিনেমাটি। বর্তমানে সিনেমার প্রচারণাতে সরব নায়িকা। তবে প্রথম সিনেমা দিয়ে সালওয়া সেভাবে আলোচনায় না আসলেও ব্যক্তিগত জীবনে এলেন আলোচনায়। প্রেম ঘটিত বিষয়ে দুই দিন ধরে আলোচনায় নায়িকা।

বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) বিকেলে আচমকা ফেসবুক স্ট্যাটাসে অভিযোগ তোলেন, তাকে ‘প্রাণনাশের হুমকি’ দিচ্ছেন সিলেটের সাবেক এক সংসদ সদস্যের পুত্র। তবে কিছুক্ষণের মধ্যেই সেই স্ট্যাটাস মুছে দেন সালওয়া।

জানান, তিনি রাগের বশে ওই স্ট্যাটাস দিয়েছেন। ঘটনাটি তারা পারিবারিকভাবে সমাধান করে ফেলেছেন। সিলেটের ওই এমপির নাম নবাব আলী আব্বাস খান। তার পুত্র নবাব আলী হাসিব খানের সঙ্গে সালওয়ার প্রেমের সম্পর্ক। তবে সম্প্রতি তাদের মধ্যে মনোমালিন্যে হয়েছে। এ কারণেই ক্ষুব্ধ হয়ে ওই স্ট্যাটাস দেন সালওয়া।

এ প্রসঙ্গে সালওয়া নিউজজিকে বলেন, ৬ মাস হয়েছে আমাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক চলছে। সম্প্রতি তৃতীয় পক্ষের কারণে আমাদের ভুল বোঝাবুঝি হয়। বিষয়টি নিয়ে হাসিবের সঙ্গে আলাপ না করেই স্ট্যাটাস দেওয়া ঠিক হয়নি। পরবর্তীতে দুই পরিবারের মাধ্যমে বিষয়টির সুন্দর সমাধান হয়েছে। এখন আমাদের মধ্যে যোগাযোগ আছে।

তবে বিশ্বস্ত সূত্রের খবর, হাসিবের সঙ্গে ১ বছরেরও বেশি সময় ধরে চুটিয়ে প্রেম করছেন সালওয়া। বিভিন্ন সময়ে তাদের ঘোরাফেরার একাধিক ছবি নিউজজির হাতে এসেছে। তাদের মনোমালিন্যের কারণে মূলত পুরো বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে।

হাসিবের সঙ্গে সালওয়ার দ্বন্ধ সামনে আসলে চট্টগ্রাম-৬ আসনের সংসদ সদস্য এবিএম ফজলে করিম চৌধুরীর জ্যেষ্ঠ সন্তান তরুণ রাজনীতিবিদ ফারাজ করিম চৌধুরীর সঙ্গেও প্রেমের গুঞ্জন শোনা যায়। এ ছাড়াও ঢাকায় আরও প্রেম রয়েছে বলে নেটদুনিয়ায় এ নিয়ে চর্চা হচ্ছে। 

তবে বিষয়টি সত্য নয় জানিয়ে সালওয়া বলেন, ফারাজ করিমের সঙ্গে আমার পরিচয় নেই। এসব সত্য নয়। যারা রটাচ্ছেন আমার একাধিক প্রেম রয়েছে তাদের প্রমাণ দেওয়ার অনুরোধ করছি। দয়া করে কেউ গুজব ছড়াবেন না।

সালওয়া প্রসঙ্গে নওয়াব আলী হাসিব খান বলেন, আমাদের মাঝে কিছু ভুল বোঝাবুঝি হয়েছিল। পরে সমাধান হয়েছে। সে তার ভুল বুঝে স্ট্যাটাস ডিলিট করেছে। এখন আমাদের সম্পর্ক সব ঠিক আছে। সালওয়া আমাকে অনেক ভালোবাসে।

ফেসবুকে ক্ষমা চেয়ে সালওয়া লিখেছেন, ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির যেকোনো চাকচিক্য থেকে আমার কাছে পারিবারিক বন্ধন ও মূল্যবোধের মর্যাদা অনেক বেশি, একজন সিলেটি রক্ষণশীল পরিবারের মেয়ে হিসেবে। সিলেট বিভাগের কুলাউড়া উপজেলার (জুড়ী-কমলগঞ্জ একাংশ) জনগণের ভোটে সর্বাধিকবার নির্বাচিত এমপি নবাব আলী আব্বাস খান আমাকে তার নিজ কন্যার মতো স্নেহ করেন। যার রাজনৈতিক ক্যারিয়ারে কোনো দুর্নীতির তকমা নেই। তিনি অত্যন্ত ভালো একজন মানুষ।

সালওয়া ওই পোস্টে বলেন, তার পুত্র নবাব আলী হাসিব খানের সঙ্গে তৃতীয় ব্যক্তির ইন্ধনে আমাদের সম্পর্কের অবনতি ঘটে। আমাদের পরিবার চায়নি পবিত্র হজ পালনের পর আমি পুনরায় চলচ্চিত্রে কাজ করি। এ থেকে আমাদের মাঝে মনোমালিন্যের সৃষ্টি হয়। পরে কিছু অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে। তবে সব কিছুর পরে আমার একান্ত উপলব্ধি আমাদের জীবনে সব কিছুর ঊর্ধ্বে পারিবারিক বন্ধন ও ভালোবাসা। ক্ষণস্থায়ী কোনো কিছুর জন্য নিজের পারিবারিক শান্তি বিনষ্ট করার কোনো মানে হয় না।

কে সেই তৃতীয় ব্যক্তি যার কারণে প্রেমিকের সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি ঘটেছে সালওয়ার—সেই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে এই অভিনেত্রীকে প্রশ্ন করলে এ নিয়ে মুখ খুলতে নারাজ তিনি।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’-এ প্রথম রানারআপ হয়েছিলেন সালওয়া। এরপরই তিনি সিনেমায় কাজ শুরু করেন। মোট চারটি সিনেমাতে কাজ করেছেন। এর মধ্যে গত ১৬ সেপ্টেম্বর ‘বীরত্ব’ মুক্তি পেয়েছে। বাকি তিনটি ‘স্বপ্নে দেখা রাজকন্যা’, ‘এই তুমি সেই তুমি’ ও ‘বুবুজান’ রয়েছে মুক্তির অপেক্ষায়।

নিউজজি/রুআ

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন