সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৪ আশ্বিন ১৪২৮ , ১১ সফর ১৪৪৩

শিক্ষা

পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড.শামসুল আলমকে হাবিপ্রবি উপাচার্যের অভিনন্দন

আব্দুল মান্নান, হাবিপ্রবি থেকে ১৯ জুলাই , ২০২১, ১৫:০১:২৪

  • ছবি : নিউজজি

হাবিপ্রবি: বরেণ্য কৃষি অর্থনীতিবিদ প্রফেসর ড. শামসুল আলমকে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে অভিনন্দন জানিয়েছেন দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপচার্য প্রফেসর ড. এম.কামরুজ্জামান। 

সোমবার (১৯ জুলাই) দুপুর ২টার দিকে নিজের ফেসবুক আইডি থেকে নব নিযুক্ত পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী প্রফেসর ড. শামসুল আলমকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানোর ছবি পোস্ট করে তিনি লিখেন, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথিতযশা অধ্যাপক, পরিকল্পনা কমিশনের সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের সদ্য সাবেক সদস্য (সিনিয়র সচিব), মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার সার্বিক দিক নির্দেশনায় যিনি পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা, প্রেক্ষিত পরিকল্পনা, শতবর্ষী পরিকল্পনা ডেল্টা প্লান ২১০০ সহ পরিকল্পনা প্রনয়নের নানাবিধ পর্যায়ে কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখেছেন সেই আমার শ্রদ্ধাভাজন শিক্ষক প্রফেসর ড. শামসুল আলমকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী নিযুক্ত করেছেন। হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে আমি শ্রদ্ধাভাজন শিক্ষককে জানাই আন্তরিক অভিনন্দন।

উল্লেখ্য যে, প্রফেসর ড. শামসুল স্যার কর্মজীবনে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৯৭৪ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত অধ্যাপনা করেন তিনি ৪ বছর তিন মাস জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচীতে ২০০২ থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশি কনসালটেন্ট হিসেবে কাজ করেন। ২০০৮ সালে তিনি জার্মানির হুমবোল্ট বিশ্ববিদ্যালয়, বেলজিয়ামের ঘেণ্ট বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিজিটিং অধ্যাপক এবং নেদারল্যান্ডের ওয়াগিনেঞ্জেন ইউনিভার্সিটি অ্যান্ড রিচার্সে ইরসমাস মুন্ডুস স্কলার হিসেবে কাজ করেন। এছাড়া বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ফ্যাকাল্টি হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন।

২০০৯ সালের ১ জুলাই প্রেষণ ছুটিতে সরকার তাকে পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য হিসেবে নিয়োগ প্রদান করে। ২০১৫ সালে কমিশনের সদস্য থাকাবস্থায় তাকে জ্যেষ্ঠ সচিব করা হয়। ২০১৬ সালে অধ্যাপনা থেকে অবসর গ্রহণ করেন। কমিশন সদস্য হিসেবে তার মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার পর কয়েকবার তার মেয়াদ বৃদ্ধি করা হয়। সর্বশেষ ২০১৮ সালের ২০ জুন পুনরায় সরকার তাকে তিন বছরের জন্য নিয়োগ প্রদান করে। শামসুল আলম ৩০ জুন ২০২১ সাল সিনিয়র সচিব থেকে অবসর গ্রহণ করেন। ১৬ জুলাই ২০২১ বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের বরাতে শামসুল আলমকে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগের ব্যাপারে ঘোষণা দেয়া হয়।

পরিকল্পনা কমিশনে দায়িত্ব পালনের সময় তিনি ‘বাংলাদেশের প্রথম প্রেক্ষিত পরিকল্পনা’ (২০১০-২০২১) ও ‘ষষ্ঠ পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা’ (২০১১-২০১৫) প্রণয়ন করেন। তিনি ‘বাংলাদেশ টেকসই উন্নয়ন কৌশলপত্র’ (২০১১-২০২১) ও ‘সামাজিক নিরাপত্তা কৌশলপত্র’ (২০১৫-২০২৫) নীতিমালা প্রণয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। তিনি বাংলাদেশে সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এমডিজি) অর্জন বিষয়ক বেশ কিছু প্রতিবেদন, অধ্যয়ন ও গবষণা গ্রন্থ সরাসরি তত্ত্বাবধান ও সম্পাদনা করেন।

২০১৮ সালে সাউথ এশিয়ান নেটওয়ার্ক ফর ইকনোমিক মডেলিং তাকে ইকনোমিস্ট অব ইনফ্লুয়েন্স পুরস্কারে ভূষিত করে। এছাড়াও একই বছর তিনি বাংলাদেশ কৃষি অর্থনীতিবিদ সমিতি স্বর্ণপদক, বাংলাদেশ শিক্ষা পর্যবেক্ষণ সোসাইটি কর্তৃক ‘নজরুল ইসলাম স্মৃতি পদক’ লাভ করেন। ২০২০ সালে অর্থনীতিতে বিশেষ অবদানের জন্য বাংলাদেশ সরকার তাকে দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার একুশে পদক প্রদান করে। সর্বশেষ গতকাল তিনি পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ করেন।

 

নিউজজি/এসএম

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
        
copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers