বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ১ আষাঢ় ১৪২৮ , ৫ জিলকদ ১৪৪২

শিল্প-সংস্কৃতি
  >
মঞ্চ

জমকালো আয়োজনে পর্দা উঠল ‘বটতলা রঙ্গমেলা’র

নিউজজি প্রতিবেদক ১৭ নভেম্বর , ২০১৯, ১২:২৩:১৪

  • জমকালো আয়োজনে পর্দা উঠল ‘বটতলা রঙ্গমেলা’র

আগারগাঁও মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরে গতকাল ১৬ নভেম্বর শনিবার সন্ধ্যা ৬ টা থেকে শুরু হয়েছে আন্তর্জাতিক নাট্যোৎসব ‘বটতলা রঙ্গমেলা ২০১৯’। জমকালো অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে উৎসব উদ্বোধন করেন বরেণ্য নাট্যজন মঞ্চসারথি আতাউর রহমান। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সংস্কৃতি সচিব ড. মো. আবু হেনা মোস্তফা কামাল।

এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তিনজন তরুণ নাট্যকার- সাধনা আহমেদ, রুমা মোদক ও শুভাশিস সিনহা।  উপচেপড়া সাধারণ দর্শকদের পাশাপাশি উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের থিয়েটার অঙ্গনের বন্ধু-শুভাকাঙ্ক্ষী, গণমাধ্যমের সাংবাদিক ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।

উদ্বোধনী আয়োজন সঞ্চালনা করেন উৎসব পরিচালক মোহাম্মদ আলী হায়দার। উৎসব উদ্বোধনের পরপরই বহিরাঙ্গনে নাদিম মঞ্চে শুরু হয় শুভাশিস সিনহার ভাবনায় ও মণিপুরি থিয়েটার দলের পরিবেশনায় নৃত্য-নাটক ‘ঢাক-করতালে বাজুক জীবন’। এ পর্বে বক্তব্য দেন নাট্যজন ও শিশু একাডেমির চেয়ারম্যান লাকী ইনাম। 

এরপর সন্ধ্যা ৭টা ৩০ মিনিটে রঙ্গমঞ্চের মূল মিলনায়তনে প্রদর্শিত হয় স্বাগতিক দল বটতলার সাড়া জাগানো নাটক ‘ক্রাচের কর্নেল’।

শাহাদুজ্জামানের উপন্যাস থেকে নাটকটির নাট্যরূপ দিয়েছেন সৌম্য সরকার ও সামিনা লুৎফা নিত্রা এবং নির্দেশনা দিয়েছেন মোহাম্মদ আলী হায়দার। এই নাটকের মাধ্যমে দলটি উন্মোচন করতে চেয়েছে বাংলাদেশের ইতিহাসের এক অস্থির সময়কে। 

বটতলা রঙ্গমেলার মূল বাণী হচ্ছে- ‘এখন সময় যূথতার, মেলবন্ধনের। প্রকৃতিতে- মানুষে, মানুষে- মানুষে, দেশে দেশে ঐকতান বাজলেই কেবল মানবতা আর ধরিত্রীর প্রাণভোমরা একসাথে টিকে যাবে- জিতে যাবে শুভবোধ! জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে হালের সম্মুখযোদ্ধা কিশোরপ্রাণেরা যেমন করে ভেঙে গেছে নৃশংস নৈঃশব্দ তেমনি তাদের সাহসে সাহস মিলিয়ে বিশ্বের পক্ষে, প্রাণের পক্ষে দাঁড়াবার সুনন্দ সাহস চাই আজ। আজকের পথ একটাইঃ উচ্চে তুলে শির- কণ্ঠে দিয়ে শান সৃজনে- আনন্দে আমরা ফেরাবই ধ্বংস থেকে সৃষ্টির পথে; প্রাণে প্রাণ মেলাবোই গোলকের সব প্রান্ত ছুঁয়ে- এই রঙ্গভাবনা নিয়ে ৩য় বারের মত নাট্যমোদী দর্শকের জন্য শুরু হয়েছে বটতলা রঙ্গমেলা ২০১৯।’

১১ দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক এই নাট্যোৎসবে প্রতিদিন ‘মূল রঙ্গমঞ্চে’ সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা থেকে বটতলাসহ বাংলাদেশের ২টি ও বিদেশের ৮টি দল তাদের নাটক পরিবেশন করবে। অংশগ্রহণকারী দেশগুলো হলো- বাংলাদেশ, ভারত, স্পেন, ইরান ও নেপাল। প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬টায় বহিরাঙ্গনে ‘নাদিম মঞ্চে’ থাকছে- নাটক, গান, পারফরমেন্স আর্ট, কবিতা, মূকাভিনয়, নাচসহ বিভিন্ন আনন্দ আয়োজন।

গতবারের মত এবারও থাকছে দেশের ৮টি বিভাগের ৮ নাট্যজনকে সম্মাননা প্রদান- যারা খুব নীরবে-নিভৃতে দীর্ঘদিন ধরে নাট্যচর্চাকে এগিয়ে নিতে অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন এবং করছেন। আপনারা জানেন যে, বটতলা রঙ্গমেলা উৎসবে প্রতিবারই মঞ্চের একজন গুণী শিল্পীকে আজীবন সম্মাননা প্রদান করে থাকে। এবারে ২৬ নভেম্বর উৎসবের সমাপনী অনুষ্ঠানে আজীবন সম্মাননা প্রদান করা হবে খ্যাতিমান অভিনেতা, নাট্যকার ও নির্দেশক মামুনুর রশীদকে।

বটতলা এবারের উৎসবে যুক্ত করেছে আরেকটি ভিন্ন মাত্রা। বিভাগীয় নাট্যজনদের পাশাপাশি এবার পর্দার অন্তরালের ১০ জন মানুষকে সম্মান জানানো হচ্ছে, যারা দীর্ঘদিন ধরে মঞ্চ নাটককে সফল করতে অন্তরালে থেকে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন প্রতিদিন। এছাড়াও থাকছে ৩টি মাস্টার ক্লাস। আছে বাংলাদেশ ও ভারতের ৫ জন নাট্য ব্যক্তিত্বের উপর ডকুমেন্টারি প্রদর্শনী। উৎসব সংক্রান্ত যে কোনো তথ্যের জন্য ক্লিক করুন : www.bottala.com

নিউজজি/এসএফ

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers