সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৪ আশ্বিন ১৪২৮ , ১১ সফর ১৪৪৩

শিল্প-সংস্কৃতি

যেমন ছিল ঈদের নাটক

রুহুল আমিন ভূঁইয়া ২৯ জুলাই, ২০২১, ১০:৪০:৫০

  • যেমন ছিল ঈদের নাটক

দেখতে দেখতে শেষ হয়ে গেল ঈদ। দেশের বৃহৎ দুই উৎসব ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আযহা। ঈদ বিনোদনের অন্যতম প্রিয় মাধ্যম নাটক। বছরের অন্য যে কোনো সময়ের তুলনায় ঈদে এক ঘণ্টার নাটক, টেলিছবি ও ধারাবাহিক নাটক বেশি প্রচার হয়।

ঈদ আনন্দের আমেজ অনেকটাই বাড়িয়ে দেয় টিভি নাটক। ঈদের ছুটি আর আনন্দকে বাড়িয়ে দিতে দেশের কোনো টিভি চ্যানেল পিছিয়ে ছিল না। প্রতিটি চ্যানেলে সাতদিন ব্যাপি ঈদ অনুষ্ঠানের আয়োজন ছিল। ঈদে বিভিন্ন চ্যানেলে প্রচার হয়েছে অসংখ্য নাটক, টেলছবি ও ধারাবাহিক।

ঈদের আমেজ নিয়ে নাটক দেখতে বসেন দর্শক। করোনার কারণে যেহেতু প্রেক্ষাগৃহ বন্ধ তাই ঘরবন্দি সময়টা দর্শকদের নজর ছিল নাটক ঘিরে। এ কথা মাথায় রেখে নির্মাতাও তার নাটকে ভিন্নতা দেওয়ার চেষ্টা করেছেন। তবে যাই হোক না কেন, দর্শক আগ্রহের কেন্দ্রে থাকেন হালের জনপ্রিয় নির্মাতা ও তারকারা।

দর্শকের চাহিদার কথা মাথায় রেখে চ্যানেলগুলো চেষ্টা করেছে ভিন্ন মাত্রার কিছু নাটক উপহার দিতে। এবং পরিচালকদের মধ্যে ভালো কিছু তৈরি করার প্রবণতা যেমন বেড়েছে তেমনি দ্রুত কাজ শেষ করার মনোভাবটাও বোধ হয় কিছুটা বেড়েছে।

একই ঘটনা ক্ষেত্র বিশেষ কিছু অভিনয় শিল্পীদের মধ্যেও দেখা গেছে। তবুও আশার ব্যাপার হচ্ছে দর্শকরা ভালো কাজগুলো দেখছে এবং ভালো-খারাপের পার্থক্য বুঝতে পারছে।

এবারের কোরবানির ঈদে বিভিন্ন চ্যানেল ও ইউটিউবে ভালো-মন্দ মিলিয়ে প্রায় দেড়শ নাটক প্রচার হয়েছে। নানা অভিযোগের মধ্যেও বেশ কিছু নাটক দর্শক খুব ভালো ভাবে গ্রহণ করেছেন। ইউটিউব ট্রেন্ডিংয়ে এগিয়ে আছে প্রায় দুই ডজনের মতো নাটক। যার ফলাফল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখা যাচ্ছে।

চাহিদার শীর্ষে থাকা মোশাররফ করিম থেকে শুরু করে আফরান নিশো, জাহিদ হাসান, চঞ্চল চৌধুরী, জিয়াউল ফারুক অপূর্ব, নুসরাত ইমরোজ তিশা, জাকিয়া বারী মম, মেহজাবীন চৌধুরী, মুশফিক ফারহান, ফারহান আহমেদ জোভান, তাসনিয়া ফারিণ, সাবিলা নূর, কেয়া পায়েল, তানজিন তিশাদের অসংখ্য নাটকে দেখা গেছে।

এবার ঈদুল আযহায় প্রচারিত নাটকগুলোর হিসাব কষে জানা যায়, হানিফ সংকেতের রচনা ও পরিচালনায় ‘যুগের হুজুগে’ নাটকটি ছিল আলোচনায়। এছাড়াও সাড়া জাগানো নাটকের মধ্যে রয়েছে মাবরুর রশীদ বান্নাহ পরিচালিত ‘সুইপার ম্যান’, ‘দ্য টিচার’ ও ‘মায়ের ডাক’। 

অন্য নাটকের মধ্যে রয়েছে ‘পুনর্জন্ম’, ‘চিরকাল আজ’, ‘কায়কোবাদ’, ‘হ্যালো শুনছেন’, ‘প্রবাসী টাকার মেশিন’, ‘কোরবানীর বিরাট হাট’, ‘বাগান বাড়ি’,  ‘বাবু’, ‘ডিভোর্সী বউ’, ‘নয়ন তারা স্টোর’, ‘ভাইয়ের সাথে একান্ত আলাপে’, ‘মাই নেম ইজ ফকির’, ‘শোকসভা’, ‘শনির দশা’, ‘দ্বিতীয় সূচনা’।

‘অদ-ভূত’, ‘২১ বছর পরে’, ‘আগডুম বাগডুম’, ‘মন দরিয়া’, ‘অন্য এক প্রেম’, ‘আপন’, ‘আলো’, ‘বাবা তোমাকে ভালোবাসি’, ‘আপন’, ‘প্লাস ফোর পয়েন্ট ফাইভ’, ‘গরুর মাংস’, ‘নানা বাড়ি’, ‘ক্রাইসিস’ ও ‘কসাই গ্যাং’।

তবে এবারের ঈদের তুমুল সমালোচিত নাটক রুবেল হাসান পরিচালিত সিএমভি প্রযোজিত, আফরান নিশো-মেহজাবীন চৌধুরী অভিনীত ‘ঘটনা সত্য’। এই নাটকের সংলাপ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম সরব রয়েছে। ‘বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন’ শিশুদের সম্পর্কে আপত্তিকর মন্তব্য করায় এ নিয়ে প্রতিবাদ হয়।

পরে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ইউটিউব থেকে নাটকটি সরিয়ে নেয়। ক্ষমা চায় নাটকটির প্রযোজক, পরিচালক ও অভিনয়শিল্পীরা। তবুও প্রশ্ন থেকে যায়। অনেকেই বলছেন এটি ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ!

আমাদের দেশের টিভি নাটকের ক্ষেত্রে অনেক সংকট রয়েছে। আছে নানান অভিযোগ। এটা আমরা সবাই জানি এবং মানিও। তারপরও নাটক নিয়ে আমাদের স্বপ্নের যেন শেষ নেই। প্রতিনিয়ত শিল্পী আর কলাকুশলীরা চেষ্টা করে যাচ্ছেন কিভাবে এই স্বল্প বাজেটের মধ্যেও ভালো কাজ করা যায়। আর সেই ধারাবাহিকতা এখনও আছে বলেই আমাদের দেশীয় চলচ্চিত্রের চেয়ে টিভি নাটক অনেক এগিয়ে।

নিউজজি/রুআ

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
        
copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers