সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ৬ আষাঢ় ১৪২৮ , ১০ জিলকদ ১৪৪২

দেশ

ঈদ উৎসবে মেহেদীতে হাত রাঙিয়েছে ভাসমান শিশুরা

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি ১২ মে, ২০২১, ১২:৪৭:৩৪

  • ছবি : নিউজজি

লক্ষ্মীপুর: ঈদ এসেছে, মেহেদীর রঙে সাজছে শিশু-কিশোর-রমনীদের হাত। তবে টাকার অভাবে মেহেদিতে হাত রাঙাতে পারে না অনেকেই। এরমধ্যে বেদে পল্লী ও ভাসমান জেলে শিশুরা অন্যতম। যাদের পরিবারের কর্তার উপার্জন দিয়ে কোনরকম সংসার চলে। তাদের কাছে সখ হল দুষ্প্রাপ্য বিষয়। তবে এবার ঈদ উৎসেবে মেহেদী দিয়ে হাত রাঙিয়ে ভাসমান শিশুদের স্বপ্ন পূরণ করেছে পরিবেশবাদী স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সবুজ বাংলাদেশ।

মঙ্গলবার (১১ মে) বিকেলে সদর উপজেলার মজুচৌধুরীর হাট এলাকায় মেঘনা নদীর সংযোগ খালে ভাসমান অর্ধ-শতাধিক জেলে শিশুদের হাত মেহেদী দিয়ে রাঙিয়ে দিয়েছে সংগঠনের সদস্যরা। পরে তাদেরকে গোসল করিয়ে নতুন জামা পরানো হয়। এ সময় শিশুদের পরিবারের জন্য ঈদ উপহার হিসেবে সেমাই-চিনি দেয়া হয়েছে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন লক্ষ্মীপুর পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের উপ-পরিচালক ডা. আশফাকুর রহমান মামুন, সবুজ বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি শাহীন আলম, সহ-সভাপতি একে এম মাহবুবর রশীদ চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন বাবু, লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার সাধারণ সম্পাদক মিজান উদ্দীন সোহাগ, সদস্য আবদুর রহমান, মেহেরাজ হোসেন রবিন ও নাঈম উদ্দীন রকি প্রমুখ।

জানা গেছে, ভাসমান জেলেরা সবসময় অবহেলিত। তাদের উপার্জন অনুযায়ী ছেলে-মেয়েদের সখ পূরণ করা সম্ভব হয় না। এই ঈদেও এখনো অনেক বাবা তার সন্তানদের নতুন জামা কিনে দিতে পারেনি। সেসব জেলে শিশুদের মুখে হাসি ফোটাতে হাতে মেহেদী লাগানোসহ ঈদ পোশাক দেয়ার উদ্যোগ নেয় সবুজ বাংলাদেশ। পরে হামদর্দ ল্যাবরেটরীজ (ওয়াকফ্) বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. ইউছুফ হারুনের সহধর্মীনী কামরুন নাহার পলিন তাদেরকে আর্থিক সহযোগীতা করেন।

সবুজ বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন বাবু বলেন, ভাসমান জেলে শিশুরা শিক্ষাসহ সব দিক থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। তাদের হাত মেহেদী দিয়ে রাঙিয়ে দিয়েছি। নতুন জামা পেয়ে তারা আনন্দ মাতোয়ারা হয়েছে। সবসময় অসহায় মানুষগুলোর জন্য সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিতে আমরা চেষ্টা করি।

 

নিউজজি/এসএম

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
copyright © 2021 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers