রবিবার, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ১৫ মাঘ ১৪২৯ , ৭ রজব ১৪৪৪

দেশ

ট্রাফিক পুলিশবক্স উচ্ছেদে বাধা, কর্মকর্তাদের গ্রেপ্তারের হুমকি

নিউজজি প্রতিবেদক ২৪ জানুয়ারি, ২০২৩, ২১:০৪:০৪

66
  • ট্রাফিক পুলিশবক্স উচ্ছেদে বাধা, কর্মকর্তাদের গ্রেপ্তারের হুমকি

ঢাকা: রাজধানীর আসাদগেট এলাকায় নির্মাণাধীন একটি ট্রাফিক পুলিশ বক্স উচ্ছেদ করতে গিয়ে পুলিশের বাধার সম্মুখীন হয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) কর্মকর্তারা। এ সময় ট্রাফিক পুলিশের সদস্যদের বাধায় উচ্ছেদ অভিযান না করেই ফিরে যান ডিএনসিসি) নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। এ সময় পুলিশ সদস্যরা উচ্ছেদ অভিযানে যাওয়া কর্মকর্তাদের গ্রেপ্তারেরও হুমকি দেন বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) নির্মাণাধীন ওই স্থাপনা উচ্ছেদ করতে যান ডিএনসিসির কর্মকর্তারা। তখন তারা পুলিশের বাধার মুখে পড়েন। সেখানে প্রায় এক ঘণ্টা অপেক্ষা করে উচ্ছেদ না করেই ফিরে যেতে হয় কর্মকর্তা–কর্মচারীদের।

উচ্ছেদ অভিযানে যাওয়া উত্তর সিটির কর্মকর্তাদের অভিযোগ, পুলিশের সদস্যরা উচ্ছেদের কাজে তাদের শুধু বাধা–ই দেননি, তাদের গ্রেপ্তার করার এবং উচ্ছেদ অভিযানে ব্যবহৃত ডাম্প ট্রাক ও পে-লোডার জব্দ করে ডাম্পিংয়ে পাঠানোর হুমকিও দিয়েছেন।

ডিএনসিসির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোতাকাব্বির হোসেন জানান, মানিক মিয়া অ্যাভিনিউতে আড়ংয়ের বিপরীতে রাস্তার মাঝখানে কে বা কারা একটি অবৈধ একতলা ভবন নির্মাণ করছে—এমন খবর পেয়ে আমরা সেখানে উচ্ছেদ অভিযানে যাই। গত ১৫ দিন আমরা কারওয়ান বাজার এলাকায় অভিযান অব্যাহত রেখেছি। ফুটপাত মুক্ত করেছি। আজকেও প্রতিদিনের মতো মানিক মিয়া অ্যাভিনিউয়ে আমরা উচ্ছেদে গিয়েছিলাম। রাস্তার মাঝে কোনো অবৈধ ভবন হতে পারে না। কিন্তু সেখানে যাওয়ার পর পুলিশ আমাদের উচ্ছেদে বাধা দিয়েছে। এরপর আমরা চলে আসি।

সিটির কর্মকর্তারা বলেন, কর্মকর্তাদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সকালে পে-লোডার, ডাম্প ট্রাক প্রস্তুত করে অভিযানে যান উত্তর সিটির কর্মকর্তারা। এ সময় সেখানে তিন থেকে চারজন পুলিশ সদস্য ছিলেন। তারা মুঠোফোনে ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাদের ডেকে আনেন। পুলিশের কর্মকর্তারা এসেই বলতে শুরু করলেন, ওদের অ্যারেস্ট করেন, পে-লোডার ডাম্পিংয়ে নিয়ে যান।

সিটি কর্মকর্তারা অভিযোগ করেন, পুলিশের সদস্যরা তাদের উদ্দেশ্য করে বলেন, তারা ভোররাতে আসছে চুরি করতে, তারা কি এখানে উচ্ছেদ করতে আসছে? উচ্ছেদ করতে আসার আগে কেন পুলিশকে জানায়নি। তারা সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করতে এগুলো করছেন। তাদের সবাইকে গ্রেপ্তার করেন।

তবে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) তেজগাঁও বিভাগের উপকমিশনার শাহেদ আল মাসুদ জানান, সিটি করপোরেশনের গাড়ির কাগজপত্র নেই। আমাদের সদস্যরা গাড়ির চালকের কাগজপত্র দেখতে চাইলে তারা পালিয়েছে। তারা একটি ইস্যু সৃষ্টি করেছে।

তিনি আরও জানান, কোনো স্থাপনা ভাঙতে হলে তো ম্যাজিস্ট্রেটসহ কিছু প্রক্রিয়া আছে। হুট করে কেউ এসে একটা ঘর ভেঙে দিয়ে গেল, এভাবে তো সম্ভব নয়। তার ভাষায়, যথাযথ প্রক্রিয়ায় ডিএমপি কমিশনারকে জানালে তিনি যে সিদ্ধান্ত দেবেন, সেটিই হবে। হুট করে সকালবেলায় ভাঙচুরের কোনো সুযোগ নেই।

তিনি আরও বলেন, সারা দেশে হাজার হাজার পুলিশ বক্স, সেগুলোর বিষয়ে কী সিদ্ধান্ত তাদের? হঠাৎ করে এটিতে কেন তাদের নজর?

নিউজজি/ এএন

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন