রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ৮ কার্তিক ১৪২৮ , ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

দেশ

ইভ্যালির মালিক গ্রেফতার : গ্রাহকের টাকা দেবে কে?

নিউজজি প্রতিবেদক ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১৮:১৭:২৪

259
  • ইভ্যালির মালিক গ্রেফতার : গ্রাহকের টাকা দেবে কে?

ঢাকা: ই-কমার্স সাইট ইভ্যালির সিইও মোহাম্মদ রাসেলকে গ্রেপ্তারের পর গ্রাহকরা নিজেদের পাওনা নিয়ে হতাশায় পড়েছেন। রাসেলকে গ্রেফতার পর এখন গ্রাহকদের পাওনা টাকা কে দেবেন, এমন প্রশ্ন করছেন গ্রাহকরা।

বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৪টায় র‌্যাব-২ অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে। ইভ্যালির সিইও-কে গ্রেফতারের পর শতশত গ্রাহক ভিড় করছেন।

ইভ্যালির সিইও মোহাম্মদ রাসেল গ্রাহকদের টাকা ফেরত দেয়ার জন্য ছয় মাস সময় চেয়েছেন। কিন্তু আইনশৃ্ঙ্খলা বাহিনী সেই সময় দেয়নি বলে অনেক গ্রাহক বলছেন।

সিরাজুল ইসলাম নামে এক গ্রাহক বলছেন, ই-কমার্স ব্যবসায়ীদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী গ্রেফতার করলেও পরে গ্রাহকদের পাওনা টাকা নিয়ে কোনো ধরনের সমাধান আসে না। তাই ইভ্যালির মালিক রাসেল ৬ মাস সময় চেয়েছিল তাকে সময় দেয়া দরকার ছিল।

সেখানে উপস্থিত থাকা গ্রাহকদের মধ্যে অনেকে বলছেন, ইভ্যালির মালিক দীর্ঘদিন ধরে গ্রাহকদের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছে। সেই বিষয়টি নিয়ে বেশ আন্দোলন করেছি। কিন্তু তখন কোনো আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ইভ্যালির মালিককে গ্রেফতার করেনি। এমনকি একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে ইভ্যালির চুক্তি হতে যাচ্ছিল। তখনও নিশ্চুপ ছিল র‌্যাব ও পুলিশ। এখন হঠাৎ করে কেন গ্রেফতার করা হলো। এখন গ্রাহকদের পাওনা টাকা দেবে কে? গ্রাহকরা কোথায় গিয়ে পাওনা টাকা চেয়ে আবেদন করবেন? এসব বিষয়ে সুষ্ঠু সমাধান হওয়া দরকার।

ইভ্যালির সিইও ও চেয়ারম্যানকে গ্রেফতারের সময়ে মোহাম্মদপুরে বাসার সামনে আন্দোলন করছেন লিমন মিয়া। তিনি বলেন, ইতোমধ্যে অনলাইন প্ল্যাটফর্ম ই-অরেঞ্জের মালিককে গ্রেফতার করা হয়েছে। তিনি জেলে রয়েছেন কিন্তু গ্রাহকদের পাওনা টাকা নিয়ে কোনো সমাধান আসনেনি। এখন ইভ্যালির মালিক গ্রেফতার হলে আমাদের পাওনা টাকা দেবে কে? লিমনের মতো অনেক গ্রাহক নিজেদের পাওনা টাকা নিয়ে সংশয়ের মধ্যে রয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরের দিকে ইভ্যালির সিইও’র বাসায় অভিযান চালায় র‌্যাব। এসময় গ্রাহকরা স্লোগান দেন- রাসেল ভাইয়ের কিছু হলে, জ্বলবে আগুন ঘরে ঘরে।

সেখানে উপস্থিত এক গ্রাহক কাঁদতে কাঁদতে বলেন, আমি তিন লাখ টাকার চেক পেয়েছি। এখন রাসেলকে গ্রেফতার করা হলো। এখন আমার টাকার কী হবে। আমরা তো এতদিন আশায় ছিলাম যে, টাকা ফেরত পাব। কিন্তু তিনি যদি কারাগারে থাকেন, তাহলে তো আর টাকা ফেরত নাও পাওয়া যেতে পারে। এখন কী করব, কোথায় যাব?

এদিকে জানা গেছে, ইভ্যালির চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিন এবং তার স্বামী প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মোহাম্মদ রাসেলকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাবের সদরদপ্তরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

ঢাকা মহানগর পুলিশের গুলশান বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) মো. আসাদুজ্জামান জানান, গতকাল বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) মধ্যরাতে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার পূর্বগ্রাম এলাকার বাসিন্দা মো. আরিফ বাকের এই মামলাটি দায়ের করেছেন।

নিউজজি/টিবিএফ

 

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন