মঙ্গলবার, ২৩ জানুয়ারি ২০১৮, , ৫ জুমাদিউল আউয়াল ১৪৩৯

খেলা

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে হাথুরুসিংহের শুভকামনা

শামীম চৌধুরী জানুয়ারী ১৪, ২০১৮, ১৮:১৫:০৮

  • ছবি: ইন্টারনেট থেকে

ঢাকা: হেড কোচ পদে দ্বিতীয় মেয়াদে ২০১৯ সালের জুন পর্যন্ত বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সঙ্গে থাকার কথা ছিল চন্দিকা হাথুরুসিংহের। আইসিসি’র ফিউচার ট্যুর প্রোগাম ( এফটিপি) দেখে বাংলাদেশ দ্বিতীয় মেয়াদে বাংলাদেশ দলের সফর এবং সিরিজগুলোতে বুলিয়ে নিয়েছিলেন চোখ। প্রতিপক্ষদের বিপক্ষে কৌশলগত পরিকল্পনাও তৈরি করে ফেলেছিলেন এই শ্রীলংকান। এই ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজ নিয়েও ছিল তার মহাপরিকল্পনা। কিভাবে নিজের দেশ শ্রীলংকাকে হারাতে হবে, জিম্বাবুয়েকে তুড়ি মেরে উড়িয়ে দিতে হবে, আরো অনেক কিছু ছিল তার পরিকল্পনায়। সেই হাতুরুসিংহে গত বছরের অক্টোবরে দক্ষিন আফ্রিকা সিরিজের মাঝপথে বাংলাদেশ দলের হেড কোচ পদ থেকে পদত্যাগ করে পদত্যাগপত্র দিয়েছেন বিসিবিকে পাঠিয়ে, শনিবার এসেছেন বাংলাদেশ সফরে শ্রীলংকা দল নিয়ে ! বাংলাদেশে এবার এসেছেন অন্য পরিচয়ে, বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ হয়ে।  বাংলাদেশে নুতন পরিচয়ে ফিরে রোমাঞ্চিত হাথুরুসিংহে। রবিবার মিডিয়াকে সেই অনুভুতির কথাই জানিয়েছেন বাংলাদেশ দলের সাবেক হেড কোচ-‘ বাংলাদেশে আর ফিরে আমি রোমাঞ্চিত। সিরিজটির দিকে তাকিয়ে আছি। নতুন চ্যালেঞ্জ নিয়ে আমি সত্যিই রোমাঞ্চিত। একই সঙ্গে নতুন দল ও এই দলের যা স্কিল আছে, সেসব নিয়েও আমি রোমাঞ্চিত।’

আশ্চর্য হলেও সত্য, নুতন পরিচয়ে, নুতন এই পথচলায় আবেগ অবশ্য স্পর্শ করছে না তাকে। বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের হেড কোচ পদে দায়িত্ব পালনকালে আবেগকে দেননি প্রাধান্য, এখনো সেই দর্শনেই আছেন বলে জানিয়েছেন হাথুরুসিংহে-‘ এখানে  সাড়ে তিন বছর ছিলাম, আমি যে আবেগকে প্রশ্রয় দেই না, তা তখনই কিন্তু জানিয়ে দিয়েছি।’

দক্ষিন আফ্রিকা সফরে ঠিক সফরের মাঝপথে তার পদত্যাগ অপেশাদারী আচরনের বহি:প্রকাশ ঘটিয়েছে। তা নিয়ে কম সমালোচনা হয়নি। তবে  সিরিজের মাঝপথে পদত্যাগের সিদ্ধান্তের নেপথ্য কারন জনসমক্ষে আনতে চাইছেন না হাথুরুসিংহে-‘আমার পেশাদারী দায়িত্ব নিয়ে বা বিসিবির সঙ্গে কিভাবে চুক্তি করেছি, সেটির নিয়ে বিস্তারিত গভীরে যেতে চাই না। আগেও করিনি, এখনও করব না। এই প্রশ্নের উত্তর তাই দিতে পারছি না।’  বাংলাদেশকে বিপদে ফেলে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নিয়েছে বলে হাথুরুসিংহের উপর যে ক্ষোভ আছে বাংলাদেশ সমর্থকদের, সেই অভিযোগের জবাব দিয়েছেন তিনি-‘ আমি তা মনে করি না। নাহলে চলে যেতাম না।’ 

বাংলাদেশের ক্রিকেটের সাফল্যের অধ্যায়ে মিশে আছে তার নাম। থাকবে সারাজীবন। তার মেয়াদে বাংলাদেশ ২১ টেস্টের ৬টিতে জিতেছে, ৪টিতে করেছে ড্র’। ৫২ ওয়ানডেতে সেখানে ২৫ জয়, ২৯ টি টি-২০তে জয় সেখানে ১০টি। নিজের দেশ শ্রীলংকার মাটিতে স্বাগতিক দলের বিপক্ষে টেস্ট,ওয়ানডে,টি-২০-তিনটি সিরিজেই বাংলাদেশ ১-১ এ ড্র’ করেছে, সেই অতীত মাত্র ৯ মাস আগের। সেই শ্রীলংকা ক্রিকেট দল যখন খাঁদের কিনারে দাঁড়িয়ে,তখন নিজের দেশের দলটিকে উদ্ধার করতে নিয়েছেন হেড কোচের দায়িত্ব। তবে বাংলাদেশ ক্রিকেট অধ্যায়ে সফল এই কোচ দায়িত্ব ছেড়ে দিয়েও বাংলাদেশ দলের জন্য শুভকামনা করেছেন-‘  আমি এখনও চাই বাংলাদেশ ভালো করুক। বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের শুভকামনা জানাই। ওদের সঙ্গে অনেক ঘনিষ্ঠ ছিলাম, খুব ভালো জানা-শোনা হয়ে গিয়েছিল। আমি চাই ওরা অনেক সাফল্য বয়ে আনুক। একই ভাবে চাই বাংলাদেশ আরও সফল হোক। একই সঙ্গে এখন  আমি চাইব, শ্রীলঙ্কা ভালো করুক।’ 

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

copyright © 2016 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers