মঙ্গলবার, ২৩ জানুয়ারি ২০১৮, , ৫ জুমাদিউল আউয়াল ১৪৩৯

জীবনযাত্রা

উলের পোশাকে শীতের উষ্ণতা

নিউজজি ডেস্ক জানুয়ারী ৫, ২০১৮, ২৩:৪৪:৫৪

  • উলের পোশাকে শীতের উষ্ণতা

উলের তৈরি পোশাকের উত্পত্তি খ্রিস্টের জন্মের পূর্বে, মধ্যপ্রাচ্যে এবং এটি ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চলের মাধ্যমে ইউরোপে বিস্তৃত হয়েছে। উলের ব্যবহার সম্পর্কে প্রথম জানা যায় ইরানের প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন থেকে। সম্ভবত লৌহযুগে হাতে তৈরি উলের পোশাকের প্রচলন হয়। রোমান যুগে উল, লিনেন ও চামড়ার পোশাকের প্রথম প্রচলন ঘটে ইউরোপে। মধ্যযুগে বাণিজ্যিক সম্পর্ক সম্প্রসারণের লক্ষ্যে বিভিন্ন দেশের মধ্যে উলের ব্যবসা শুরু হয়। ইংল্যান্ডে প্রথম উল ফ্যাক্টরি প্রতিষ্ঠিত হয় ৫০ খ্রিস্টাব্দে উইনচেস্টারে রোমানদের দ্বারা। ১৭৯৭ সালে ব্রিটিশরা অস্ট্রেলিয়ায় ১৩টি মেরিনো ভেড়া নিয়ে একটি উলের ফ্যাক্টরি তৈরি করে। এই মেরিনো ভেড়ার লোম থেকেই তৈরি করা হয় সবচেয়ে উন্নত উল এবং তাতে তৈরি হয় পাতলা উলের পোশাক। পৃথিবীতে সবচেয়ে বড় উল উত্পাদক দেশ হলো অস্ট্রেলিয়া, আর্জেন্টিনা, চীন ও দক্ষিণ আফ্রিকা।

উলের পোশাকের আবির্ভাব শীতপ্রধান দেশে উষ্ণতা প্রদানের লক্ষ্যে হলেও ফ্যাশনেবল প্রোডাক্ট হিসেবে এর যাত্রা শুরু ১৯ শতকে। প্রথম এমনটি দেখা যায় ১৮২৪ সালে ডাচ ম্যাগাজিন পেনিলোপি, যা ছিল উলের ক্রোসেট প্যাটার্নে তৈরি। পোশাক ছাড়াও উলের তৈরি লেইস ১৯ শতকের শুরুর দিকে ব্রিটেন, আমেরিকা, ফ্রান্সে প্রচলিত হয় এবং ১৮০০ সালে তা চীন, ইরান, উত্তর আফ্রিকা, ভারতসহ ইউরোপে ছড়িয়ে পড়ে। শুরুতে উলের পোশাক হাতে বোনা হলেও পরবর্তীকালে মেশিন আবিষ্কারের ফলে অনেক জটিল প্যাটার্নের পোশাক তৈরি সহজ ও দ্রুত হয়ে যায়।

শীতে এই পোশাক আমাদের প্রতিদিনের সঙ্গী বললেই চলে।তবে নিত্য ব্যবহারে উলের এই সোয়েটারগুলো খুব সহজেই নষ্ট হয়ে যায়। তাই এগুলোর বাড়তি যত্ন নেওয়া প্রয়োজন।তবেই সব সময় আপনার উলের পোশাকটি দেখাবে নতুনের মতো। 

উলের যত্নে বিষেশজ্ঞদের কিছু পরামর্শ।

১. সঠিক ব্রাশটি ব্যবহার করুন উলের সোয়েটার ধোয়ার জন্য ওয়াশিং মেশিন ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকতে হবে। কারণ ওয়াশিং মেশিনে উলের সোয়েটার ধুতে গেলে কাপড়ের জেল্লা কমে যায়। উঠতে পারে গুটিও। উলের কাপড়ে সহজেই ধুলাবালি আটকে থাকে।তাই প্রতিদিন সোয়েটারটি খুলে ইলেক্ট্রিক ব্রাশ দিয়ে পরিষ্কার করতে হবে। 

২.দাগ পরিষ্কার করুন আলতো হাতে যদি কোনো কারণে আপনার সোয়েটার বা স্কার্ফে দাগ লেগে যায় তাহলে এটাকে ড্রাই ক্লিনার দিয়ে পরিষ্কার করতে হবে। আর যদি দাগটি কঠিনতর না হয়ে থাকে তাহলে সেটাকে ভালো মানের ডিটারজেন্ট পাউডার দিয়ে ধুতে হবে। অবশ্যই ডিটারজেন্ট পাউডার হালকা গরম পানিতে মেশাতে হবে এবং কাপড়টি হাত দিয়ে পরিষ্কার করতে হবে। 

৩. ঝুলিয়ে রাখবেন না উলের সোয়েটার অন্যান্য পোশাকের মতো ঝুলিয়ে রাখা উচিৎ না। কারণ এ ধরনের পোশাকগুলো এতই নরম হয় যে ঝুলিয়ে রাখার ফলে এর আকার নষ্ট হয়ে যায়।উলের সোয়েটার শুকানোর জন্য কোনো সমতল জায়গা ব্যবহার করা উচিৎ । 

৪. ইস্ত্রি করার নিয়ম পুরোপুরি শুকনো অবস্থায় উলের সোয়েটার ইস্ত্রি করা উচিৎ নয়। ইস্ত্রি করার সময় সোয়েটার বা শাল উলটে নিন। স্টিম দিয়ে ইস্ত্রি করার চেষ্টা করুন, গরম ইস্ত্রি সরাসরি যেন উল স্পর্শ না করে সেদিকে লক্ষ রাখুন। তাছাড়া পশমি বা উলের কাপড় ইস্ত্রি করার সময় এর ওপর সুতির কাপড় বিছিয়ে নিলে কাপড় ইস্ত্রি অনেক সহজ হয়।

৫. জীবাণু প্রতিরোধ উলের কাপড়ে খুব সহজেই জীবাণু আক্রমণ করতে পারে।তাই উলের পোশাকগুলো যেন স্যাঁতস্যাঁতে না হয় সে দিকে খেয়াল রাখতে হবে।এছাড়া উলের কাপড়গুলো আপনি যে আলমারিতে রাখবেন সেখানে কিছু ন্যাপথলিন রাখা ভালো।এতে খুব সহজেই জীবানু প্রতিরোধ করা যায়।

ছবি ও তথ্য – ইন্টারনেট । 

পাঠকের মন্তব্য

লগইন করুন

ইউজার নেম / ইমেইল
পাসওয়ার্ড
নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে এখানে ক্লিক করুন
copyright © 2016 newsg24.com | A G-Series Company
Developed by Creativeers